বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে দাঁড়িয়ে কী ভুল করেছেন সোনু সোদ, প্রশ্ন কেজরির
সোনু সুদ.     ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার
সোনু সুদ.     ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার

পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে দাঁড়িয়ে কী ভুল করেছেন সোনু সোদ, প্রশ্ন কেজরির

  • তিনি জানান, ‘‌সত্যের পথে থাকলে, অনেক প্রতিবন্ধকতা আসে। কিন্তু সত্যেরই জয় হবে।

‌এবার অভিনেতা সোনু সুদের পাশে দাঁড়ালেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। সেই সঙ্গে সোনু সুদের বাড়িতে আয়কর হানা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানালেন কেজরিওয়াল। আম আদমি পার্টির তরফে প্রশ্ন, লকডাউনে দরিদ্র খেটে খাওয়া পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে দাঁড়িয়ে কী ভুল করেছেন সোনু সুদজী।

সম্প্রতি আম আদমি সরকারের ঘোষিত প্রকল্প ‘‌দেশ কা মেন্টর’‌–এর ব্র‌্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসাবে সোনু সুদকে মনোনীত করা হয়। সরকারের এই প্রকল্পের মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীরা তাঁদের ক্যারিয়ার তৈরি করার সুযোগ পাবেন। দিল্লি সরকারের এই প্রকল্পের প্রচারে যখন সোনু সুদের মতো ব্যক্তিত্ব এগিয়ে এসেছেন, তখন অভিনেতার বাড়িতে আয়কর বিভাগের আধিকারিকদের হানা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলেই মনে করছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তিনি জানান, ‘‌সত্যের পথে থাকলে, অনেক প্রতিবন্ধকতা আসে। কিন্তু সত্যেরই জয় হবে। এই প্রতিকূল সময়ে দেশের লাখো লাখো পরিবার সোনু সুদজীর জন্য প্রার্থনা করছেন।’‌

শুধু কেজরিওয়ালই নয়, আম আদমি পার্টির অন্যান্য নেতা নেত্রীরাও সোনুর হয়ে টুইটে মত প্রকাশ করেছেন। প্রত্যেকেই অভিনেতার পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। আপ নেতা রাঘব চন্দ্র এই ঘটনার নিন্দা করে জানিয়েছেন, ‘‌দেশের লাখ লাখ মানুষ যখন একজন সমাজসেবীকে দেবতা জ্ঞানে পূজা করছে, তখন নিরাপত্তাহীনতার ভুগতে থাকা একটি সরকার তাঁকে অপদস্ত করার চেষ্টা করছে। তাঁর অপরাধ আসল কী, গরিব খেটে খাওয়া মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি।’‌ আরেক আপ নেতা অতিশী টুইটে প্রশ্ন তুলেছেন, ‘‌লকডাউনে পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ানো কী অপরাধ?‌ দুঃসময়ে কাউকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া কী অপরাধ?‌’‌

প্রসঙ্গত, বুধবার আয়কর দফতরের তরফ থেকে সোনুর বাড়িতে সমীক্ষা করা হয়। প্রায় কুড়ি ঘণ্টা ধরে তাদের প্রশ্নোত্তরের পালা চলেছে বলে জানা গিয়েছে। 

 

বন্ধ করুন