বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'সমাজবাদী পারফিউম' নির্মাতার বাড়িতে তল্লাশি আইটির, চাঞ্চল্য যোগীরাজ্যে
'সমাজবাদী পারফিউম' নির্মাতার বাড়িতে তল্লাশি আইটির, চাঞ্চল্য যোগীরাজ্যে। (ছবি সৌজন্য: টুইটার)

'সমাজবাদী পারফিউম' নির্মাতার বাড়িতে তল্লাশি আইটির, চাঞ্চল্য যোগীরাজ্যে

  • উত্তরপ্রদেশের নামী পারফিউম ব্যবসায়ী পীযূষ জৈনের বাড়িতে তল্লাশি অভিযান ঘিরে কার্যত সরগরম যোগীরাজ্য। উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগে এই ব্যবসায়ী বাজারে আনেন ‘সমাজবাদী পার্টি পারফিউম’।

উত্তরপ্রদেশের নামী পারফিউম নির্মাতা হিসাবে বহু দিন পরিচিতি রয়েছে ব্যবসায়ী পীযূষ জৈনের। যোগীরাজ্যের রাজনীতিতে তিনি অখিলেশ ঘনিষ্ঠ বলেও শোনা যায়। এদিকে, সদ্য এই পীযূষ জৈন বাজারে এনেছেন 'সমাজবাদী পারফিউম'। এরপর এদিন তাঁর বাড়ি, কারখানা, দফতর, কোল্ডস্টোর, পেট্রোল পাম্পে তল্লাশি চালায় আয়কর দফতর। তাঁর বিরুদ্ধে ১৫০ কোটি টাকার করফাঁকির অভিযোগ ঘিরে চলে তল্লাশি অভিযান।

বিশেষ সূত্রে খবর পেয়ে আয়কর দফতরের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আমেদাবাদের জিএসটি ডিরেক্টোরেট ইন্টালিজেন্সের অফিসাররাও এদিন তল্লাশি অভিযানে যোগ দেন। শুধুমাত্র পীযূষ জৈনের বাড়ি বা দফতরই নয়, এক পানমশলা  প্রস্তুতকারক সংস্থার মালিক ও এক ট্রান্সপোর্টারের বিভিন্ন দফতরে তল্লাশি অভিযান চালানো হয়। এই দুজনের বিরুদ্ধে ভুয়ো বিল তৈরি করে পণ্য সরবরাহের অভিযোগ রয়েছে। এদিকে, কানপুরের বাসিন্দা পারফিউম নির্মাতা পীযূষ জৈনের আনন্দপুরীর বাসভবনে ব্যপক তল্লাশি অভিযান চলেছে বলে খবর। টাকা গোনার যন্ত্র নিয়ে সেখানে তল্লাশি অভিযান চালায় আয়কর দফতর। 

কানপুর ছাড়াও মুম্বইতে পীযূষ জৈনের বাসভবনে ব্যাপক তল্লাশি চলে। এদিকে, এই নামী ব্যবসায়ী বর্তমানে কানপুরের বাসিন্দা হলেও, তাঁর একটি কারখানা , কোল্ড স্টোর ও পেট্রোল পাম্প রয়েছে কনৌজে। সেখানেও চলে তল্লাশি। জানা যায়, কানপুরে বসবাসের আগে কনৌজে বহুদিন থেকেছেন এই ব্যবসায়ী। সূত্রের খবর পীযূষ জৈনের নামে ৪০টি সংস্থা রেজিস্টার রয়েছে। যার মধ্যে ২টি রয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলিতে। 

তল্লাশি অভিযানে থাকা অফিসাররা জানিয়েছেন, মূলত পারফিউম ব্যবসায়ী হিসাবেই পরিচিতি রয়েছে পীযূষের। মুম্বইতে রয়েছে তাঁর একটি পারফিউম শোরুম। সেখান থেকেই বিশ্বের নানা প্রান্তে পারফিউম বিক্রি করে পীযূষের সংস্থা। এদিকে, একইভাবে, ই-ওয়ে বিল তৈরি না করেই জাল চালানের আড়ালে পণ্য পরিবহনের সঙ্গে জড়িত পানমশলা প্রস্তুতকারক এবং এক পরিবহণকারীর মালিকানাধীন কারখানাতেও চলে অভিযান ।

এদিকে, পীযূষ জৈনের বাসভবনে এক ঘণ্টা তল্লাশির পরই বহু পরিমাণ অর্থ উদ্ধার হয়েছে বলে নানান খবর ছড়াতে থাকে। অফিসাররা জানিয়েছেন, কর ফাঁকির অর্থই উঠে এসেছে উদ্ধার করা নগদ থেকে। তদন্তকারী দল সূত্রের খবর ভুয়ো সংস্থার নাম দেখিয়ে ওই ব্যবসায়ী প্রচুর টাকার করফাঁকি দিতেন। এদিকে পানমশলা প্রস্তুতকারক ও পরিবহন ব্যবসার সঙ্গে জড়িত আরও দু'জনের বাড়ি থেকে বহু ভুয়ো চালান উদ্ধার হয়েছে বলে খবর। সব মিলিয়ে বছর ঘুরতেই যেখানে যোগীরাজ্যে ভোট, সেখানে তার আগে অখিলেশ ঘনিষ্ঠ ব্যবসায়ীর বাড়িতে এমন তল্লাশি অভিযানের জেরে উত্তরপ্রদেশের রাজনৈতিক পিচ বেশ সরগরম হয়ে উঠবে বলে মনে করছেন অনেকেই।

বন্ধ করুন