বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > এবার শেয়ালের হানা কাটিহারে, ৫টি গ্রামে হামলা , ৪০জন আহত

দিন কয়েক আগেই মালদার হরিশ্চন্দ্রপুরে অতর্কিতে হামলা চালিয়েছিল শেয়ালের দল। তার রেশ ফুরোয়নি এখনও। সেই ভয়াবহ ঘটনা এবার বিহারের কাটিহার জেলায়। বারসই থানার আওতায় থাকা দুটি পঞ্চায়েতের প্রায় ৫টি গ্রামে রবিবার সকালে একটি শেয়াল হামলা চালায়। গ্রামবাসীদের দাবি শেয়ালটি ক্ষেপে গিয়ে হামলা চালিয়েছিল। শেয়ালের আক্রমণে অন্তত ৪০জন গ্রামবাসী আহত হয়েছেন। এর মধ্যে মহিলা ও শিশুরাও রয়েছে। এদের মধ্যে ৮জনের আঘাত গুরুতর। নাকে, মুখে, মাথায় কামড়ে দিয়েছে শেয়ালটি। 

জামিরা গ্রামের বাসিন্দা মহম্মদ আফসার আলম বলেন, জমিতে কাজ করছিলাম। আচমকাই তেড়ে এলে পাগলা শেয়াল। এসেই কামড়াতে শুরু করল। অপর বাসিন্দা মহম্মদ রিজওয়ান বলেন, ধানের জমির দিকে সবে পা বাড়িয়েছি। কোথা থেকে শেয়ালটা এসে হামলা চালাল। বারসইয়ের স্টেশন হাউস অফিসার অরবিন্দ কুমার বলেন, গুরুতর জখমদের কাটিহার জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকিরা বারসই হাসপাতালে রয়েছেন। তবে গ্রামবাসীরাই শেয়ালটিকে পিটিয়ে মেরে দিয়েছে।

 এদিক পূর্ণিয়ার দিকেও এই শেয়ালের হানার খবর মিলেছে। গত এক সপ্তাহ ধরে অন্তত তিনবার এই শেয়ালের আক্রমণ হয়েছে। এদিকে শেয়ালের আতঙ্কে ঘুম চলে গিয়েছে বাসিন্দাদের। পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গেও শেয়ালের আতঙ্ক ছড়াচ্ছে ক্রমশ। পরিবেশবিদদের দাবি, জঙ্গল ক্রমে ফাঁকা হয়ে যাচ্ছে। খাবারের সন্ধানে শেয়ালেরা লোকালয়ে বেরিয়ে আসছে। জঙ্গলে তাদের থাকার মতো পরিস্থিতি যাতে থাকে সেটা দেখা দরকার। 

 

বন্ধ করুন