বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Jai Shree Ram: পুস্করে মমতার কনভয়ের কাছেই জয় শ্রীরাম ধ্বনি, ভিনরাজ্যেও অস্বস্তি!

Jai Shree Ram: পুস্করে মমতার কনভয়ের কাছেই জয় শ্রীরাম ধ্বনি, ভিনরাজ্যেও অস্বস্তি!

আজমেঢ়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (PTI Photo) (PTI)

২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে নেতাজির ১২৫ তম জন্মদিবসে উপলক্ষে পরাক্রম দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সামনেই উপস্থিত দর্শকদের সামনেই শুরু হয়েছিল জয় শ্রীরাম ধ্বনি।

পুস্করে পুজো দিয়ে সবে বেরিয়েছেন বাংলার মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর গাড়িটিও বেরিয়ে গিয়েছে। তবে কনভয়ে থাকা অন্যান্য গাড়িগুলি ছিল। সেই সময়ই ভিড়ের মধ্য়ে থেকে আচমকা ভেসে এল জয় শ্রীরাম ধ্বনি। বেশ কয়েকবার এই স্লোগানে মুখরিত হয় এলাকা।

তবে মুখ্যমন্ত্রী বেরিয়ে যাওয়ার পরেই এই স্লোগান শুরু হয়েছিল বলে খবর। সেকারণে মুখ্য়মন্ত্রী গাড়ি থেকে নেমে এসে পালটা প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন এমনটা এক্ষেত্রে হয়নি। তবে পুলিশ দ্রুত ওই স্লোগানদাতাদের সরিয়ে দেয়।

সূত্রের খবর, আসলে পুস্কর ও সংলগ্ন এলাকাতে বিজেপির ভালোই প্রভাব রয়েছে। আর সেখানেই পুজো দিতে গিয়েছিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর গাড়ি বেরিয়ে যাওয়ার পরেই সেখানে ওঠে জয় শ্রীরাম ধ্বনি।

এদিকে এর আগে আজমেঢ় শরিফেও চাদর চড়িয়েছিলেন মমতা। কিন্তু সেখানে আবার অন্য ছবি। মমতাকে ঘিরে ভিনরাজ্যেও বাঁধভাঙা উচ্ছাস। মমতাকে দেখে দিদি দিদি স্লোগানও ওঠে স্থানীয় এলাকায়।

আর সেই রাজস্থানের পুস্করে গিয়ে ছবিটা কিছুটা বদলে গেল এদিন। তবে মমতাকে দেখে জয় শ্রীরাম ধ্বনি দেওয়া নতুন কিছু নয়। এর আগে বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখে জয় শ্রীরাম স্লোগান দেওয়ার নজির রয়েছে। এমনকী এনিয়ে মমতা নিজেও পালটা প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছিলেন।

এর আগে ২০২১ সালে নন্দীগ্রামে প্রচারে গিয়ে রেয়াপাড়ার কাছে মমতাকে দেখে জয় শ্রীরাম ধ্বনি উঠেছিল। তবে এই ধ্বনি শুনে সেবার নিজে থেকে কোনও প্রতিক্রিয়া দিতে চাননি মমতা।

এমনকী ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে নেতাজির ১২৫ তম জন্মদিবসে উপলক্ষে পরাক্রম দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সামনেই উপস্থিত দর্শকদের সামনেই শুরু হয়েছিল জয় শ্রীরাম ধ্বনি। পরে অবশ্য বক্তব্যের মধ্য়েই এনিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন মমতা।

এবার বাংলার গন্ডি ছাড়িয়ে রাজস্থানের মাটিতেও মমতার কনভয়ের পাশে শোনা গেল জয়শ্রীরাম ধ্বনি।

 

বন্ধ করুন