বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > চিনা দখলদারী নিয়ে পোস্ট, তার কয়েক মিনিট পরেই হিমাচলে ধসে মৃত্যু হয় চিকিৎসকের
হিমাচলের ধসে প্রাণ হারানো চিকিৎসক দীপা শর্মা (ছবি সৌজন্যে টুইটার)
হিমাচলের ধসে প্রাণ হারানো চিকিৎসক দীপা শর্মা (ছবি সৌজন্যে টুইটার)

চিনা দখলদারী নিয়ে পোস্ট, তার কয়েক মিনিট পরেই হিমাচলে ধসে মৃত্যু হয় চিকিৎসকের

  • রবিবার হিমাচলপ্রদেশের কিন্নর জেলায় এক ভূমি ধসের ঘটনায় দীপা সহ প্রাণ হারান ৯ পর্যটক।

প্রাকৃতিক দুর্যোগের জেরে নিজের প্রাণ হারানোর আগের মুহূর্তেই টুইট করে ভারতের শেষ প্রান্তে নিজের একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন চিকিৎসক দীপা শর্মা। টুইটারে দীপা লিখেছিলেন, প্রকৃতি ছাড়া বৃথা জীবন। রবিবার ভারত-তিব্বত সীমান্তে দাঁড়িয়ে থাকার একটি ছবিও পোস্ট করেছিলেন দীপা। সেই টুইটের কয়েক মিনিটের মধ্যেই প্রকৃতির রোষে প্রাণ হারাতে হয় তাঁকে। উল্লেখ্য, রবিবার হিমাচলপ্রদেশের কিন্নর জেলায় এক ভূমি ধসের ঘটনায় দীপা সহ প্রাণ হারান ৯ পর্যটক।

দুর্ঘটনার কয়েক মিনিট আগে দীপা টুইট করেছিলেন ভারত-তিব্বত সীমান্তে দাঁড়িয়ে থাকা একটি ছবি। সেই ছবিতে হাসিমুখে, গলায় ক্যামেরা ঝুলিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায় তাঁকে। পাশাপাশি তিনি ছবির ক্য়াপশনে চিনকে ঠুকে লেখেন, 'ভারতের শেষ প্রান্তে দাঁড়িয়ে। এখান থেকে মাত্র ৮০ কিলোমিটার গেলেই তিব্বত, যা চিন দখল করে রেখেছে।' আর এই টুইটের কয়েক মিনিটের মধ্যেই মৃত্যু নেমে আসে দীপার উপর।

এই টুইটটি দীপা করেছিলেন রবিবার দুপুর ১২.৫৯ মিনিটে। এর মাত্র ২৬ মিনিট পরেই, অর্থাৎ, দুপুর ১.২৫ মিনিটে সাংলা-চিটকুল রোডে বাস্তেরির কাছে দুর্ঘটনার কবলে পড়েছিলেন দীপা-সহ ৯ পর্যটক। সেখানেই ধসের চাপা পড়ে প্রাণ খোয়াতে হয়েছিল সেই পর্যটকদের। উল্লেখ্য, দীপা পেশায় আয়ুর্বেদ চিকিৎসক ছিলেন। তিনি রাজস্থানের জয়পুরে থাকতেন। প্রকৃতির প্রেমে ঘুরতে ভালোবাসতেন তিনি। ২৪ জুলাই তিনি একটি টুইট করে লিখেছিলেন, 'প্রকৃতি ছাড়া বৃথা জীবন'।

হিমাচলপ্রদেশের কিন্নরে ভূমিধসের ফলে ভেঙে পড়ে একটি ব্রিজ। ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের। মৃতেরা সবাই পর্যটক। ঘটনায় আহত হয়েছেন ৪ জন। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ভূমিধসের ফলে বোল্ডারগুলি গাড়িতে ধাক্কা মারে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় পর্যটকদের। বেশ কয়েকটি পাথরের চাঁই ভেঙে পড়ে ধাক্কা মারে কাছের একটি ব্রিজ এবং তার পাশে থাকা গাড়িগুলিতে। ঘটনার সময় পর্যটকদের গাড়ির উপর ভেঙে পড়ে পাথরের চাঁইগুলি। গাড়িটিতে ১১ জন যাত্রী ছিলেন। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ৯ জন পর্যটকের। আহত হন ৩ জন। পরে আরও একজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

বন্ধ করুন