বাড়ি > ঘরে বাইরে > লাইব্রেরিতে ঢুকে জামিয়া পড়ুয়াদের মারধর উর্দিধারীদের, তদন্তের আশ্বাস দিল পুলিশ
পড়ুয়াদের উপর লাঠি চালানো হচ্ছে (ছবি সৌজন্য ভিডিয়ো স্ক্রিনগ্র্যাব)
পড়ুয়াদের উপর লাঠি চালানো হচ্ছে (ছবি সৌজন্য ভিডিয়ো স্ক্রিনগ্র্যাব)

লাইব্রেরিতে ঢুকে জামিয়া পড়ুয়াদের মারধর উর্দিধারীদের, তদন্তের আশ্বাস দিল পুলিশ

  • গত ১৫ ডিসেম্বর জামিয়ার ভাঙচুরের ঘটনার দু'মাস পর একটি সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ করেছে জামিয়া কো-অর্ডিনেশন কমিটি।

লাইব্রেবির মধ্যে বসেছিলেন পড়ুয়ারা। আচমকা সেখানে ঢুকে পড়েন কয়েকজন উর্দিধারী। কোনও প্ররোচনা ছাড়াই পড়ুয়াদের উপর লাঠি চালাতে থাকেন তাঁরা। বেধড়ক মারধর করা হয় পড়ুয়াদের।

আরও পড়ুন :জামিয়া কাণ্ডে আটক ১০; পুলিশ গুলি চালায়নি, জানাল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক

দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে ভাঙচুরের ঘটনার দু'মাস পর এমনই একটি সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ করল জামিয়া কো-অর্ডিনেশন কমিটি। ৪৫ সেকেন্ডের সেই ফুটেজ অনুযায়ী, একটি রিডিং হলে বসে রয়েছেন পড়ুয়ারা। কমিটির দাবি, সেটি এম.এ/এম.ফিল বিভাগের রিডিং হল। সেখানে পুলিশ ঢোকার আগে হুড়োহুড়ি পড়ে যায়। কয়েকজন দৌড়ে এক কোণায় চলে যান। কয়েকজন টেবিলের তলায় আশ্রয় নেন। একজন অন্যদিক থেকে দৌড়ে এসে একটি ডেস্কে বই খুলে বসে পড়েন। এরপর সেখান পুলিশ ঢুকে পড়ুয়াদের দিকে গিয়ে লাঠি চালাতে থাকে। কয়েকজন পড়ুয়া বাইরে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাঁদের বেধড়ক মারধর করা হয়।

আরও পড়ুন ৬ ঘণ্টা পর ছাড়া হল আটক জামিয়া পড়ুয়াদের:

যদিও লাইব্রেরিতে ঢুকে পড়ুয়াদের মারধরের অভিযোগ অস্বীকার করেছিল দিল্লি পুলিশ। অ্যাডিশনাল ডেপুটি কমিশনার পদমর্যাদার এক অফিসার দাবি করেছিলেন, যাতে পাথরের ঘায়ে পড়ুয়ারা জখম না হন, সেজন্য তাঁদের একটি সুরক্ষিত জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। তবে এদিনের ভিডিয়োটি পুলিশের দাবি নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিল।

আরও পড়ুন : 'অপরাধীদের মতো আচরণ পুলিশের', অভিযোগ জামিয়া পডু়য়াদের, দায়ের ২টি এফআইআর

ভিডিয়োটি প্রকাশের পর পুলিশের ভূমিকা নিয়ে সরব হয়েছে কংগ্রেস। প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরা টুইট করেন, 'দেখুন পড়ুয়াদের কীরকম নির্মমভাবে মারধর করছে দিল্লি পুলিশ। একজন পড়ুয়া বই পড়ছিলেন। কিন্তু তাঁকে মারধর করতে থাকে পুলিশ। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী (অমিত শাহ) ও দিল্লি পুলিশ মিথ্যা বলেছিল যে, তারা লাইব্রেরিতে ঢুকে পড়ুয়াদের মারধর করেনি। এই ভিডিয়ো দেখার পর যদি জামিয়ায় পুলিশি (পদক্ষেপের) বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেওয়া হয়, তাহলে সরকারের উদ্দেশ্য স্পষ্ট হয়ে যাবে।'

আরও পড়ুন : ইয়ে লো আজাদি- পুলিশের সামনেই CAA বিরোধী জামিয়ার মিছিলে গুলি চালাল যুবক

পুলিশ জানিয়েছে, ভিডিয়োর পরিপ্রেক্ষিতে তদন্ত করে দেখা হবে। একটি সংবাদসংস্থাকে দিল্লি পুলিশের স্পেশ্যাল কমিশনার (ইন্টেলিজেন্স) প্রবীর রঞ্জন বলেন, '(গত ১৫ ডিসেম্বরের) নতুন যে ভিডিয়োটি সামনে এসেছে, সেটি আমাদের নজরে এসেছে। আমরা তদন্ত করে দেখব।'

আরও পড়ুন : দিল্লিতে জামিয়ার কাছে মিছিলের ওপর চলল গুলি, আহত এক, ধৃত বন্দুকধারী

(ভিডিয়োটির সত্যতা যাচাই করে দেখেনি হিন্দুস্তান টাইমস)

বন্ধ করুন