'জনতা কার্ফু'-র জেরে রবিবার বাতিল ৩,৭০০ ট্রেন (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
'জনতা কার্ফু'-র জেরে রবিবার বাতিল ৩,৭০০ ট্রেন (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

Janta curfew: 'জনতা কার্ফু'-র জেরে রবিবার বাতিল ৩,৭০০ ট্রেন

  • একইসঙ্গে রবিবার থেকে ফুড প্লাজা, জন আহার ও সেল কিচেন বন্ধ রাখার নির্দেশ জারি করেছে আইআরসিটিস।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ঘোষিত 'জনতা কার্ফু' কর্মসূচির কারণে ৩,৭০০ ট্রেন বাতিল করল ভারতীয় রেল। আজ মধ্যরাত থেকে রবিরার রাত ১০ টা পর্যন্ত কোনও দূরপাল্লার ট্রেন যাত্রা শুরু করবে না।

আরও পড়ুন : Coronavirus Queries- WhatsApp-এ এই নম্বরে মেসেজ করলেই মিলবে উত্তর

রেলের নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, শনিবার মধ্যরাত থেকে রবিবার রাত ১০টা পর্যন্ত দেশের কোনও স্টেশন থেকে কোনও প্যাসেঞ্জার ট্রেন ছাড়বে না। বাতিল থাকবে প্রায় ২,৪০০ প্যাসেঞ্জার ট্রেন। তবে রবিবার সকাল সাতটার আগে যে প্যাসেঞ্জার ট্রেনগুলি যাত্রাপথে থাকবে, সেগুলি নির্দিষ্ট যাত্রা শেষ করবে বলে জানিয়েছে রেল। যে ট্রেনগুলি খালি থাকবে, সেগুলির যাত্রাপথও ছোটো করা হতে পারে।

আরও পড়ুন : করোনা রুখতে মোদীর কাছে আন্তর্জাতিক উড়ান বন্ধের দাবি মমতার

জরুরি প্রয়োজনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ কিছু দূরপাল্লার মেল বা এক্সপ্রেস ও ইন্টারসিটি ট্রেন চলবে। রবিবার ভোর চারটে থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত দেশের কোনও প্রান্ত থেকে কোনও মেল বা এক্সপ্রেস ও ইন্টারসিটি ট্রেন ছাড়বে না। প্রায় ১,৩০০ ট্রেন বাতিল থাকবে জানিয়েছে রেল। প্যাসেঞ্জারের ট্রেনের মতো রবিবার সকাল সাতটার আগে যে এক্সপ্রেস ট্রেনগুলি যাত্রাপথে থাকবে, সেগুলি নির্দিষ্ট গন্তব্যে যাবে।

আরও পড়ুন : করোনাভাইরাস ছড়াতে পারে টাকা-পয়সা নাড়াচাড়ায়, সতর্ক করল ‘হু’

এদিকে, কলকাতা, মুম্বই, দিল্লি, চেন্নাই ও সেকেন্দ্রাবাদ থেকে শহরতলির রেল পরিষেবা চালু থাকবে। তবে তা একেবারে ন্যূনতম। একমাত্র জরুরি পরিষেবার কারণে যতটা প্রয়োজন ততগুলি ট্রেন চালানো হবে। রেলের তরফে বলা হয়েছে, 'স্থানীয় পরিস্থিতি ও প্রয়োজন বিবেচনা করে কতগুলি ট্রেন চালানো হবে, সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত সংশ্লিষ্ট জোন। '

আরও পড়ুন : রাজ্যে করোনা আক্রান্ত বেড়ে ৩, এবার স্কটল্যান্ড ফেরত যুবতীর শরীরে ভাইরাস

একইসঙ্গে রবিবার থেকে ফুড প্লাজা, জন আহার ও সেল কিচেন বন্ধ রাখার নির্দেশ জারি করেছে ইন্ডিয়ান রেলওয়ে কেটারিং অ্যান্ড ট্যুরিজম কর্পোরেশন (আইআরসিটিসি)। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, দূরপাল্লা ও এক্সপ্রেস ট্রেনে কেটারিং পরিষেবা বন্ধ থাকবে। তবে প্রয়োজন হলে শুধু চা ও কফি বিক্রি করা যাবে। ন্যূনতম কর্মীরা সেই কাজ করবেন। তবে প্রিপেড ট্রেনে খাবার পরিবেশন করা যেতে পারে বলে জানিয়েছে আইআরসিটিসি।

বন্ধ করুন