বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > নিজেদের অবস্থানে অনড় জাপান, নয়া প্রধানমন্ত্রীর আমলে একসঙ্গে ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

নিজেদের অবস্থানে অনড় জাপান, নয়া প্রধানমন্ত্রীর আমলে একসঙ্গে ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস (HT Photo)

আন্তর্জাতিক সমালোচনা সত্ত্বেও জাপান তাদের নীতি থেকে সরেনি। বিশেষত, জাপানবাসীরও এতে সমর্থন রয়েছে।

মঙ্গলবার তিনজন দোষীকে মৃত্যুদণ্ড দিল জাপান। বছরদুয়েকের মধ্যে এটিই প্রথম মৃত্যুদণ্ড। জাপান সরকার জানিয়েছে, 'নৃশংস অপরাধের' ক্ষেত্রে মৃত্যুদণ্ড বজায় রাখা প্রয়োজন।

বিশ্বজুড়ে হাতে গোনা কয়েকটি কয়েকটি উন্নত দেশেই এখনও মৃত্যুদণ্ড রয়েছে। তাদের মধ্যে জাপান একটি। আন্তর্জাতিক সমালোচনা সত্ত্বেও জাপান তাদের নীতি থেকে সরেনি। বিশেষত, জাপানবাসীরও এতে সমর্থন রয়েছে। বর্তমানে জাপানে ১০০ জনেরও বেশি মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত। অধিকাংশই গণহত্যার মামলায় দোষী।

মঙ্গলবার মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত তিনজনের একজন ইয়াসুতাকা ফুজিশিরো(৬৫)। ইয়াসুতাকা ২০০৪ সালে তার ৮০ বছরের কাকিমা, দুই খুড়তুতো ভাই এবং আরও চারজনকে নৃশংসভাবে হত্যা করেছিল। অন্য দুজন হল ৫৪ বছরের তোমোয়াকি তাকানেজাওয়া এবং মিটসুনোরি ওনোগাওয়া (৪৪)। ২০০৩ সালে একটি আর্কেড গেম পার্লারের দুই ক্লার্ককে হত্যা করেছিল তারা।

মানবাধিকার পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের মতে, বিশ্বব্যাপী, ১৮টি দেশে গত বছর কমপক্ষে ৪৮৩ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে। তবে, এই পরিসংখ্যানে চিন, ভিয়েতনাম বা উত্তর কোরিয়ার সংখ্যা নেই। সেই দেশগুলি বরাবরই নিজেদের তথ্য বাকি বিশ্বের থেকে লুকিয়েই রাখে।

বন্ধ করুন