বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > সবে ঘর গুছোতে নামছিলেন রাহুল, এর মধ্যেই কেন কংগ্রেস ছাড়লেন জিতিন প্রসাদ?
কংগ্রেস ছাড়লেন জিতিন প্রসাদ (ফাইল ছবি)
কংগ্রেস ছাড়লেন জিতিন প্রসাদ (ফাইল ছবি)

সবে ঘর গুছোতে নামছিলেন রাহুল, এর মধ্যেই কেন কংগ্রেস ছাড়লেন জিতিন প্রসাদ?

  • দলের অন্দরে ব্রাহ্মণ মুখ হিসাবেও পরিচিত ছিলেন তিনি

২০০০ সাল। কংগ্রস সভাপতি নির্বাচনে কার্যত সোনিয়া গান্ধিকেই চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বসেছিলেন জিতেন্দ্র প্রসাদ। সেই তাঁরই পুত্র ৪৭ বছর বয়সী জিতিন প্রসাদ বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জন্য বুধবারই কংগ্রেস ছেড়েছেন। উত্তরপ্রদেশের নির্বাচনের আর বছর খানেক বাকি। তার আগেই কংগ্রেস ছেড়ে দিলেন হেভিওয়েট এই নেতা। কিন্তু কেন তিনি আচমকা কংগ্রেস ছাড়লেন। দলের একাংশ হিন্দুস্তান টাইমসকে জানিয়েছেন, উত্তরপ্রদেশে বিশেষত সাহারানপুরে দলের কাজে তিনি একেবারেই সন্তুষ্ট ছিলেন না। কংগ্রেসের এক বর্ষীয়ান নেতার দাবি, ‘যাঁরা সমাজবাদী পার্টি থেকে কংগ্রেসে এসেছেন তাঁরা বেশি গুরুত্ব পেয়ে যাচ্ছেন আর বছরের বছর ধরে যাঁরা নানা প্রতিকূলতার মধ্যে কংগ্রেস দলটা করছেন তাঁদের কোনও গুরুত্বই নেই। এতেই বিরক্ত হয়ে গিয়েছিলেন জিতিন প্রসাদ।’

 

প্রসঙ্গত ইউপিএ জমানায় তিনি ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। দলের অন্দরে ব্রাহ্মণ মুখ হিসাবেও পরিচিত ছিলেন। কংগ্রেসের পরিষদীয় দলনেতা অধীর চৌধুরী বলেন, ‘তাঁকে ভালো মানুষ হিসাবেই জানি।’ তবে রাজনৈতিক মহলের মতে, টিম রাহুল গান্ধির গুরুত্বপূর্ণ মুখ জিতিন প্রসাদ কংগ্রেস ছেড়ে দেওয়াকে ঘিরে নানা চর্চা শুরু হয়েছে। সবে যখন ঘর গোছানোর কাজ শুরু করার উদ্য়োগ নিচ্ছেন রাহুল গান্ধি তখনই দল ছেড়ে বেরিয়ে গেলেন তাঁরই বিশ্বস্ত সহকর্মী। প্রসঙ্গত ২০২০ তে অপর কংগ্রেস নেতা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া বিজেপিতে যাওয়ার জন্য কংগ্রেস ছেড়েছিলেন। প্রসঙ্গত এর আগে জিতিন প্রসাদকে বাংলায় সংগঠন পরিচালনার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল।

 

২০০০ সাল। কংগ্রস সভাপতি নির্বাচনে কার্যত সোনিয়া গান্ধিকেই চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বসেছিলেন জিতেন্দ্র প্রসাদ। সেই তাঁরই পুত্র ৪৭ বছর বয়সী জিতিন প্রসাদ বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জন্য বুধবারই কংগ্রেস ছেড়েছেন। উত্তরপ্রদেশের নির্বাচনের আর বছর খানেক বাকি। তার আগেই কংগ্রেস ছেড়ে দিলেন হেভিওয়েট এই নেতা। কিন্তু কেন তিনি আচমকা কংগ্রেস ছাড়লেন। দলের একাংশ হিন্দুস্তান টাইমসকে জানিয়েছেন, উত্তরপ্রদেশে বিশেষত সাহারানপুরে দলের কাজে তিনি একেবারেই সন্তুষ্ট ছিলেন না। কংগ্রেসের এক বর্ষীয়ান নেতার দাবি, যাঁরা সমাজবাদী পার্টি থেকে কংগ্রেসে এসেছেন তাঁরা বেশি গুরুত্ব পেয়ে যাচ্ছেন আর বছরের বছর ধরে যাঁরা নানা প্রতিকূলতার মধ্যে কংগ্রেস দলটা করছেন তাঁদের কোনও গুরুত্বই নেই। এতেই বিরক্ত হয়ে গিয়েছিলেন জিতিন প্রসাদ।

প্রসঙ্গত ইউপিএ জমানায় তিনি ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। দলের অন্দরে ব্রাহ্মণ মুখ হিসাবেও পরিচিত ছিলেন। কংগ্রেসের পরিষদীয় দলনেতা অধীর চৌধুরী বলেন, তাঁকে ভালো মানুষ হিসাবেই জানি। তবে রাজনৈতিক মহলের মতে, টিম রাহুল গান্ধির গুরুত্বপূর্ণ মুখ জিতিন প্রসাদ কংগ্রেস ছেড়ে দেওয়াকে ঘিরে নানা চর্চা শুরু হয়েছে। সবে যখন ঘর গোছানোর কাজ শুরু করার উদ্য়োগ নিচ্ছেন রাহুল গান্ধি তখনই দল ছেড়ে বেরিয়ে গেলেন তাঁরই বিশ্বস্ত সহকর্মী। প্রসঙ্গত ২০২০ তে অপর কংগ্রেস নেতা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া বিজেপিতে যাওয়ার জন্য কংগ্রেস ছেড়েছিলেন। প্রসঙ্গত এর আগে জিতিন প্রসাদকে বাংলায় সংগঠন পরিচালনার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল।

|#+|

 

 

 

 

 

 

 

 

 

  

বন্ধ করুন