বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Jobs: বেসরকারি চাকরিতে স্থানীয় প্রার্থীদের জন্য ৭৫% সংরক্ষণ, নিয়ম চালু হচ্ছে এই রাজ্যে
বেসরকারি চাকরিতে স্থানীয় প্রার্থীদের জন্য ৭৫% সংরক্ষণ, নিয়ম চালু হচ্ছে হরিয়ানায়। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য মিন্ট)
বেসরকারি চাকরিতে স্থানীয় প্রার্থীদের জন্য ৭৫% সংরক্ষণ, নিয়ম চালু হচ্ছে হরিয়ানায়। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য মিন্ট)

Jobs: বেসরকারি চাকরিতে স্থানীয় প্রার্থীদের জন্য ৭৫% সংরক্ষণ, নিয়ম চালু হচ্ছে এই রাজ্যে

  • সেই আইন আগামী বছরের ১৫ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হতে চলেছে।

বেসরকারি চাকরিতে স্থানীয় প্রার্থীদের জন্য ৭৫ শতাংশ পদ সংরক্ষিত রাখতে হবে। হরিয়ানা সরকারের সেই আইন আগামী বছরের ১৫ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হতে চলেছে। শুধুমাত্র মাসিক ৫০,০০০ টাকা পর্যন্ত বেতনের চাকরির ক্ষেত্রেই সেই নিয়ম কার্যকর হবে বলে জানানো হয়েছে।

শনিবার হরিয়ানা সরকারের তরফে বিজ্ঞপ্তি জারি করে বলা হয়েছে, ‘২০২০ সালের হরিয়ানা স্টেট এমপ্লয়মেন্ট অফ লোকাল ক্যান্ডিডেটস অ্যাক্টের (স্থানীয় প্রার্থীদের চাকরি সংক্রান্ত আইন) প্রথম ধারার তৃতীয় উপ-ধারার ক্ষমতার প্রয়োগ করে হরিয়ানার রাজ্যপাল জানাচ্ছেন যে ২০২২ সালের ১৫ তম দিবসে (আগামী বছরের ১৫ জানুয়ারি) ওই উপধারা কার্যকর হতে চলেছে।’ অর্থাৎ হরিয়ানায় অবস্থিত বিভিন্ন সংস্থা, সোসাইটি, ট্রাস্ট-সহ বেসরকারি চাকরির ক্ষেত্রে ৭৫ শতাংশ পদ স্থানীয় প্রার্থীদের জন্য সংরক্ষিত রাখতে হবে। তবে মাসিক ৫০,০০০ টাকা পর্যন্ত বেতনের চাকরির ক্ষেত্রেই সেই নিয়ম প্রয়োজ্য হতে চলেছে বলে জানানো হয়েছে।

গত বছরের নভেম্বরে হরিয়ানা বিধানসভায় স্টেট এমপ্লয়মেন্ট অফ লোকাল ক্যান্ডিডেটস বিল পাশ হয়ে গিয়েছিল। তবে সেই সময় যথেষ্ট বিতর্ক হয়েছিল। একটি অংশের দাবি ছিল যে হরিয়ানা বিধানসভায় স্টেট এমপ্লয়মেন্ট অফ লোকাল ক্যান্ডিডেটস বিলে (সেই সময় বিল ছিল) যে নিয়মকানুন আছে, তাতে বেসরকারি সংস্থাগুলির মধ্যে বিরূপ মনোভাব তৈরি হতে পারে। মারুতি সুজুকি ইন্ডিয়া লিমিটেডের চেয়ারম্যান আর সি ভার্গব বলেছিলেন, ‘এরকম সংরক্ষণ নীতির সমর্থন করি না। সিআইআই রাজ্য সরকারকে জানিয়েছে যে এরকম পদক্ষেপের ফলে শিল্প মোটেও প্রতিযোগিতামূলক হবে। আমি সিআইআইয়ের উদ্বেগের সঙ্গে সহমত পোষণ করি।’

বিশেষত গুরুগ্রামের মতো যে এলাকা আছে, সেখানে প্রচুর ভিনরাজ্যের মানুষ কাজ করেন। সেখানে কীভাবে বেসরকারি চাকরিতে স্থানীয় প্রার্থীদের জন্য ৭৫ শতাংশ পদ সংরক্ষণ করা যাবে, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। যদিও সেইসব প্রশ্নের মধ্যে চলতি বছর মার্চের শুরুতেই সেই বিলে অনুমোদন দেন রাজ্যপাল।

বন্ধ করুন