আনুষ্ঠানিক ভাবে ভারতীয় জনতা পার্টির সর্বভারতীয় সভাপতি নির্বাচিত হলেন জগত্ প্রকাশ নাড্ডা। সভাপতি পদের জন্য একটিই মনোনয়ন পত্র জমা পড়েছিল, তাই শেষে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হলেন নাড্ডা।

গত বছর জুন মাসে কার্যনির্বাহী সভাপতি হিসাবে নিযুক্ত হন নাড্ডা। সভাপতি হিসাবে তাঁর মেয়াদকাল ২০২২ অবধি। বিজেপিতে সাংগঠনিক নির্বাচনের পর জাতীয় সভাপতি নির্বাচনের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল। ২১টি রাজ্যে প্রথমে রাজ্য সভাপতি নির্বাচিত করা হয়। এদিন নাড্ডার পক্ষে প্রস্তাব পেশ করেন ২১টি রাজ্য ও বিজেপির সংসদীয় দল।

একদা এবিভিপির সাধারণ সম্পাদক, জেপি নাড্ডা তাঁর অমায়িক আচরণ ও সংগঠন সামলানোর জন্য দক্ষতার জন্য সুবিদিত। ৫৯ বছর বয়সী নাড্ডা দীর্ঘদিন নিজের রাজ্য হিমাচল প্রদেশে সংগঠনের দায়িত্ব ছিলেন। তারপর দিল্লির রাজনীতিতেও খাপ খাইয়ে গিয়েছেন তিনি। মিতভাষী, সকলকে নিয়ে চলার ক্ষমতা রাখা নাড্ডার কাছে চ্যালেঞ্জটি এভারেস্টের থেকেও খাড়া।

ছয় বছর অমিত শাহর নেতৃত্বে ভারতীয় রাজনীতির শিখরে গিয়েছে বিজেপি। লোকসভায় রেকর্ড জয়, একের পর এক রাজ্যে জয়, গেরুয়া রথ এগিয়ে গিয়েছে সদর্পে। মিতভাষী নাড্ডা অবশ্য দায়িত্ব নিচ্ছেন কঠিন সময়। অর্থনীতির হাল বেহাল, সিএএ-এনরাসি নিয়ে ব্যাকফুটে কেন্দ্রে। সামনেই দিল্লি নির্বাচন, যেখানে এগিয়ে কেজরিওয়ালের আপ। প্রতি পরিস্থিতিতেই তাঁর কাজের সঙ্গে বর্তমান রাজনীতির চাণক্য অমিত শাহর তুলনা করা হবে। এই সব চাপ কাটিয়ে বিজেপিকে কতটা এগিয়ে নিতে পারেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, এখন সেটাই দেখার।




বন্ধ করুন