বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > প্রতিহিংসায় পরিণত হলে বিচারের চরিত্রহনন হয়, দাবি প্রধান বিচারপতির
সংঘর্ষে বিচারাধীন অভিযুক্তদের মৃত্যুর জেরে প্রধান বিচারপতির মন্তব্য তাত্পর্যপূর্ণ।

প্রতিহিংসায় পরিণত হলে বিচারের চরিত্রহনন হয়, দাবি প্রধান বিচারপতির

বিচার যদি প্রতিহিংসায় পরিণত হয়, তাহলে তার চরিত্রহনন হয়। এমনই মত প্রধান বিচারপতি শরদ অরবিন্দ বোবডের। তেলাঙ্গানায় চার অভিযুক্তের মৃত্যুর জেরে এই মন্তব্য তাত্পর্যপূর্ণ।

প্রতিহিংসায় পরিবর্তিত হলে সুবিচারের চরিত্রহনন হয়। তেলাঙ্গানায় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ড মামলায় ৪ অভিযুক্তের মৃত্যুর পরের দিন এমনই মন্তব্য করলেন প্রধান বিচারপতি শরদ অরবিন্দ বোবডে।

শনিবার রাজস্থানে এক অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রধান বিচারপতি সংবাদসংস্থা এএনআই-কে জানিয়েছেন, ‘দেশের সাম্প্রতিক ঘটনাবলী সেই পুরনো বিতর্কে আবার ইন্ধন জুগিয়েছে। এ বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই যে, অপরাধের ক্ষেত্রে বিচার ব্যবস্থার অবস্থান এবং গাফিলতির প্রতি দৃষ্টিভঙ্গিতে পরিবর্তন আনার বিষয়ে পুনর্বিবেচনা জরুরি। সেই সঙ্গে অপরাধ বিচারে সময়সীমা হ্রাস করাও প্রয়োজন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি মনে করি না যে, তাত্ক্ষণিক বিচার সম্ভব। বিচার কখনও প্রতিহিংসায় পরিবর্তিত হতে পারে না। যদি তা প্রতিহিংসায় পরিণত হয়, সেক্ষেত্রে বিচারের চরিত্রহনন হয়।’

উল্লেখ্য, শুক্রবার ভোরে হায়দরাবাদ ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত চার জন পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে মারা যায়। ঘটনায় প্রাথমিক ভাবে তেলাঙ্গানা পুলিশকে বীরের মর্যাদা দেওয়া হলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে নানান প্রশ্ন উঠতে শুরু করে।

বসপা নেত্রী মায়াবতী, বিজেপি নেত্রী উমা ভারতী ও প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাজ্যবর্ধন রাঠোর যেমন তেলাঙ্গানা পুলিশের পদক্ষেপকে অভিনন্দন জানান, তেমনই বিচারের আগেই অভিযুক্তদের হত্যা সমর্থন করেননি বিজেপি নেত্রী মানেকা গান্ধী, ত-ণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র এবং মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারপার্সন রেখা শর্মা।

শনিবার তেলাঙ্গানা পুলিশের ভূমিকাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আবেদন দাখিল করেছেন দুই আইনজীবী। পাশাপাশি, এ দিন সকালেই সরেজমিনে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে হায়দরাবাদে পৌঁছেছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের প্রতিনিধিদল। তেলাঙ্গানা হাইকোর্টের নির্দেশে স্থগিত রাখা হয় সংঘর্ষে নিহতদের সত্কারও।

বন্ধ করুন