বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Kala azar: এটা খেলেই সারবে কালাজ্বর, ক্লিনিকাল ট্রায়াল শুরু করবে বিহার
কালাজ্বরের বিশেষ ধরণের ওষুধের ক্লিনিকাল ট্রায়াল শুরু করবে বিহার (প্রতীকী ছবি). (Raj K Raj/HT Archive) (HT_PRINT)

Kala azar: এটা খেলেই সারবে কালাজ্বর, ক্লিনিকাল ট্রায়াল শুরু করবে বিহার

  • একেবারে বৈপ্লবিক উদ্যোগ। RMRIMS-এর ডিরেক্টর ডঃ কৃষ্ণা পাণ্ডে জানিয়েছেন, নতুন এই ট্যাবলেট একেবারে বিপ্লব এনে দেবে। সাধারণত বর্তমানে কালাজ্বর হলে ইঞ্জেকশন দিতে হয়। হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়। এবার শুধু ট্যাবলেট খেলেই হবে।

কালাজ্বরের ওষুধ তৈরিতে এবার কোমর বেঁধে নামছে বিহার। জুলাই মাসে কালাজ্বরের ওষুধের ক্লিনিকাল ট্রায়াল করার চেষ্টা করা হচ্ছে। ওষুধের নাম হবে LXE 408। ড্রাগস ফর নেগলেকটেড ডিজিস ইনিসিয়েটিভের আধিকারিক ফাবিয়ানা আলভিস জানিয়েছেন, এটা খুব সাধারণ একটা ট্যাবলেট। কিন্তু কালাজ্বরের চিকিৎসার দিশাটা বদলে দিচ্ছে। ইঞ্জেকশনের জায়গায় এই ওষুধ অত্যন্ত কার্যকরী।

আলভিস জানিয়েছেন, দ্বিতীয় পর্বের ট্রায়াল আমরা আইসিএমআরয়ের রাজেন্দ্র মেমোরিয়াল রিসার্চ ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সে( পাটনা) ও কালাজ্বর মেডিক্যাল অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার মুজফ্ফরনগর একটি বেসরকারি সেন্টারে সম্ভবত জুলাই মাসে শুরু হবে।

সাধারণত স্ত্রী স্যান্ড ফ্লাইয়ের কামড়ে এই কালাজ্বর হয়। এই মাছি কামড়ালে অনিয়মিত জ্বর, ওজন কমে যাওয়া, অ্যানিমিয়া, প্লিহা বেড়ে যাওয়া, পেট ফুলে যাওয়ার মতো লক্ষণ দেখা দেয়। যদি চিকিৎসা করা না হয় তবে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।

RMRIMS-এর ডিরেক্টর ডঃ কৃষ্ণা পাণ্ডে জানিয়েছেন, নতুন এই ট্যাবলেট একেবারে বিপ্লব এনে দেবে। সাধারণত বর্তমানে কালাজ্বর হলে ইঞ্জেকশন দিতে হয়। হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়। এবার শুধু ট্যাবলেট খেলেই হবে। 

আলভিস জানিয়েছেন, বর্তমানে AmBisome বলে একটি ইঞ্জেকশন দেওয়া হয় রোগীদের। কিন্তু সেটাও রেফ্রিজারেটরে রেখে, প্রশিক্ষিত নার্সদের দিয়ে শরীরে ইনজেক্ট করতে হয়। তবে এবার শুধু ওষুধ খেলেই হবে।

বন্ধ করুন