বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > গান্ধীজিকে নিয়ে 'কুরুচিকর ভাষণ', মধ্যপ্রদেশ থেকে ধর্ম সংসদের কালীচরণকে গ্রেফতার

গান্ধীজিকে নিয়ে 'কুরুচিকর ভাষণ', মধ্যপ্রদেশ থেকে ধর্ম সংসদের কালীচরণকে গ্রেফতার

গ্রেফতারির পর কালীচরণ মহারাজ (ছবি সৌজন্য এএনআই)

মধ্যপ্রদেশ থেকে গ্রেফতার করেছে কংগ্রেস শাসিত রাজ্যের পুলিশ।

মধ্যপ্রদেশে খাজুরাহ থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে একটি ভাড়াবাড়িতে ছিলেন। সেখানেই অভিযান চালায় পুলিশ। বৃহস্পতিবার ভোর চারটে নাগাদ ‘ধর্ম সংসদে’ মহাত্মা গান্ধীর বিরুদ্ধে কুরুচিকর মন্তব্যের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় কালীচরণ মহারাজকে। সন্ধ্যায় তাঁকে রাইপুরে আনা হবে।

গত ২৬ ডিসেম্বর ‘ধর্ম সংসদে’ কালীচরণ গান্ধীজির বিরুদ্ধে কুরুচিকর মন্তব্য করেন বলে অভিযোগ ওঠে। ভাইরাল ভিডিয়োয় ওই স্বঘোষিত ধর্মগুরুকে বলতে শোনা যায়, 'নাথুরাম গডসেজি'কে নমস্কার।' তারপরই গান্ধীজির বিরুদ্ধে কুরুচিকর মন্তব্য করেন। সেই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে রাইপুরের তিকরাপাড়া থানায় কালীচরণের এফআইআর দায়ের করা হয়। তারপর বৃহস্পতিবার ভোরে তাঁকে গ্রেফতার করে কংগ্রেস শাসিত রাজ্যের ছত্তিশগড়ের পুলিশ।

রাইপুরের পুলিশ সুপার প্রশান্ত আগরওয়ালকে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা এএনআই বলেছে, ‘মধ্যপ্রদেশের খাজুরাহ থেকে প্রায় ২৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত বাঘেশ্বর ধামের কাছে একটি ভাড়াবাড়িতে থাকছিলেন কালীচরণ মহারাজা। আজ ভোর চারটে নাগাদ তাঁকে গ্রেফতার করেছে রায়পুর পুলিশ। সন্ধ্যার মধ্যে অভিযুক্তকে নিয়ে রাইপুরে ফিরবে পুলিশের দল।’

কালীচরণের মন্তব্য নিয়ে প্রথম থেকেই সরব হয়েছিল কংগ্রেস। ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা ভূপেশ বাঘেল বলেছিলেন, 'বাপুকে কুকথা বলে আর সমাজে বিষ ছড়িয়ে  যদি একজন ভণ্ড মনে করেন যে তিনি তাঁর লক্ষ্যে সফল হয়েছেন, তাহলে এটা তাঁর ভ্রম। তাঁদের বসরাও শুনে রাখুক যে .. যেই ভারতের আত্মা আর সনাতন সংস্কৃতিকে আঘাত করার চেষ্টা করবে। তাঁদের সংবিধানও ছাড়বে না, মানুষও গ্রহণ করবেন না।'

বন্ধ করুন