বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Karnataka Hijab Row: ‘যাহাই ঘোমটা, তাহাই হিজাব’, ইন্দিরা গান্ধী, রাষ্ট্রপতির উদাহরণ দিলেন JD(S) নেতা
‘যাহাই ঘোমটা, তাহাই হিজাব’, দাবি জেডিএস নেতার

Karnataka Hijab Row: ‘যাহাই ঘোমটা, তাহাই হিজাব’, ইন্দিরা গান্ধী, রাষ্ট্রপতির উদাহরণ দিলেন JD(S) নেতা

  • ইব্রাহিম বলেন, ‘দেশের রাষ্ট্রপতি থেকে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী, সকলেই মাথায় ঘোমটা দিতেন। এটাই ভারতের ঐতিহ্য এবং সংস্কৃতি। এই ঘোমটাকেও কি পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়ার ষড়যন্ত্র বলে দাবি করবে কর্ণাটক সরকার? ঘোমটা হোক কি হিজাব, এগুলি সব একই।’

কর্ণাটকে বিগত কয়েক মাস ধরেই হিজাব নিয়ে জোর বিতর্ক চলছে। এই আবহে এবার শাসকদল বিজেপিকে তোপ দেগে জনতা দল সেকুলারের রাজ্য সভাপতি সিএম ইব্রাহিম দাবি করলেন, প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী থেকে রাষ্ট্রপতি ঘোমটা মাথায় দিতেন। তাঁর দাবি, ঘোমটা এবং হিজাব আদতে একই। তিনি আরও দাবি করেন, এটাই ভারতের ঐতিহ্য এবং সংস্কৃতি।

ইব্রাহিম বলেন, ‘দেশের রাষ্ট্রপতি থেকে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী, সকলেই মাথায় ঘোমটা দিতেন। এটাই ভারতের ঐতিহ্য এবং সংস্কৃতি। এই ঘোমটাকেও কি পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়ার ষড়যন্ত্র বলে দাবি করবে কর্ণাটক সরকার? ঘোমটা হোক কি হিজাব, এগুলি সব একই।’

এদিকে বর্তমানে হিজাব সম্পর্কিত মামলার শুনানি চলছে সুপ্রিম কোর্টে। সেই শুনানি চলাকালীন গতকাল ভারতের সলিসিটর জেনারেল তথা কর্ণাটক সরকারের আইনজীবী তুষার মেহতা দাবি করেন, কোরানে উল্লেখ থাকলেই কোনও প্রথা জরুরি হয় না। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টে হিজাব মামলার শুনানির অষ্টম দিনে কর্ণাটক সরকারের আইনজীবী সওয়াল করেন, কোনও ধর্মীয় প্রথা জরুরি এবং সুরক্ষাকবচ প্রদান করা হবে কিনা, তা নির্ধারণের ক্ষেত্রে আদালতের নির্দিষ্ট পন্থা আছে। শুধুমাত্র যে প্রথাগুলি নির্দিষ্ট শর্ত পূরণ করে সেগুলি জরুরি বলে বিবেচনা করা হয়। তিনি দাবি করেন, সংবিধানের ভিত্তিতে আদালত সিদ্ধান্ত নেবে।

প্রসঙ্গত, হিজাব বিতর্ক নিয়ে কর্ণাটক হাই কোর্টের রায়ে অসন্তুষ্ট হয়ে সুপ্রিম কোর্টে দ্বারস্থ হয়েছিলেন মামলাকারীরা। কর্ণাটক হাই কোর্ট এর আগে রায় দেয়, হিজাব মুসলিমদের জন্য বাধ্যতামূলক নয়। সেই ক্ষেত্রে স্কুল বা কলেজের ইউনিফর্ম মেনেই পড়ুয়াকে শ্রেণিকক্ষে ঢুকতে হবে। এই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে পড়ুয়ারা শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হন। সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে শুনানি চলছে।

বন্ধ করুন