বাড়ি > ঘরে বাইরে > দেশদ্রোহীদের ‘দেখামাত্র গুলি’ করতে নতুন আইন চান কর্নাটকের বিজেপি মন্ত্রী
দেশদ্রোহীদের দেখামাত্র গুলি করা উচিত, মনে করেন কর্নাটকের কৃষিমন্ত্রী বি এস পাটিল।
দেশদ্রোহীদের দেখামাত্র গুলি করা উচিত, মনে করেন কর্নাটকের কৃষিমন্ত্রী বি এস পাটিল।

দেশদ্রোহীদের ‘দেখামাত্র গুলি’ করতে নতুন আইন চান কর্নাটকের বিজেপি মন্ত্রী

  • ভারত সম্পর্কে যারা খারাপ কথা বলবে বা পাকিস্তানের সমর্থনে স্লোগান দেবে, তাদের দেখামাত্র গুলি করার জন্য আইন তৈরি করা উচিত।

ভারত-বিদ্বেষী কথা ও পাকিস্তানের সমর্থনে স্লোগান দিলে দেখামাত্র গুলি করার আইন বলবত্ করতে চান কর্নাটকের কৃষিমন্ত্রী বি সি পাটিল।

মাত্র কিছু দিন আগে এআইএমআইএম প্রধান আসাদউল্লাহ ওয়াইসির জনসভায় মঞ্চে দাঁড়িয়ে এক তরুণীর ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়।

সোমবার তারই জেরে কর্নাটকের মন্ত্রী বলেন, ‘দেশে নতুন একটি আইন চালু করার দরকার দেখা দিয়েছে। ভারত সম্পর্কে যারা খারাপ কথা বলবে বা পাকিস্তানের সমর্থনে স্লোগান দেবে, তাদের দেখামাত্র গুলি করার জন্য আইন তৈরি করা উচিত।’

পাটিল জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দেখা করে তিনি এই আইন পাশ করানোর আবেদন জানাবেন। তিনি বলেন, ‘ওরা ভারতের খাদ্য, জল ও বাতাস উপভোগ করছে। পাকিস্তান জিন্দাবাদ স্লোগান দিতে চাইলে এখানে থাকার কী দরকার? চিনে, মানুষ দেশ-বিরোধী কথা বলতে ভয় পায়। বিশ্বাসঘাতকদের মোকাবিলা করার জন্য কড়া আইন আনতে প্রধানমন্ত্রী মোদীকে অনুরোধ জানাচ্ছি।’

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদীদের বেশ কিছু বিজেপি নেতা ইতিমধ্যে ‘বিশ্বাসঘাতক’ বলে চিহ্নিত করেছেন। সম্প্রতি দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে জনতাকে ‘বিশ্বাসঘাতককে গুলি কর’ স্লোগানের মারফত্ উস্কানি দেওয়ার অভিযোগে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুরকে ‘নিষিদ্ধ’ ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

এ ছাড়া, বেশ কয়েকজন সিএএ-বিরোধীর বিরুদ্ধে গত কয়েক মাসে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ এনেছে পুলিশ।

বন্ধ করুন