বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > রেলপথে যোগাযোগ কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী, সময় জানিয়ে দিলেন রাজ্যপাল
রেলপথে যোগাযোগ গড়ে উঠবে কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী (ANI Photo) (প্রতীকী ছবি)
রেলপথে যোগাযোগ গড়ে উঠবে কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী (ANI Photo) (প্রতীকী ছবি)

রেলপথে যোগাযোগ কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী, সময় জানিয়ে দিলেন রাজ্যপাল

  • কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতীন গড়করি বলেন, নতুন এই প্রজেক্টগুলি জম্মু ও কাশ্মীরের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থাকে আরও উন্নত করবে।

কথায় আছে কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী, আসমুদ্র হিমাচল। এবার সেই কাশ্মীরের সঙ্গে কন্যাকুমারীকে রেলপথে যোগ করার উদ্যোগ। জম্মু ও কাশ্মীরের লেফটেনান্ট গভর্নর মনোজ সিনহা জানিয়েছেন, আগামী বছরের মধ্যে কাশ্মীর ও কন্যাকুমারীর মধ্যে রেল পথে যোগসূত্র তৈরি হবে। প্রায় ৩৬১২ কোটি টাকা ব্যয়ে জম্মু ও কাশ্মীরে নতুন চারটি জাতীয় সড়ক প্রকল্প তৈরি হবে। তারই শিলান্যাস অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে একথা জানিয়েছেন রাজ্যপাল। কেন্দ্রীয় সড়ক ও পরিবহণ মন্ত্রী নীতীন গড়করিও উপস্থিত ছিলেন ওই অনুষ্ঠানে। রাজ্যপাল জানিয়েছেন, ২০২২ সালের মধ্যে কাশ্মীর ও কন্যাকুমারীর মধ্যে রেলের মাধ্যমে যোগসূত্র তৈরি হবে। 

তিনি আরও জানিয়েছেন, যোগাযোগ ব্য়বস্থার উন্নতি কাশ্মীরের আর্থ সামাজিক পরিস্থিতিকেও বদলে দিয়েছে। বারামুল্লা ও গুলমার্গের মধ্যে রাস্তাটিকে আরও উন্নত করা হচ্ছে। শ্রীনগর শহরে রিং রোড তৈরির ব্যাপারেও উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। রাজ্যপাল জানিয়েছেন, ২০১৪ সাল পর্যন্ত লাদাখ সহ সাবেক জম্মু ও কাশ্মীরে কেবলমাত্র ৭টি জাতীয় সড়ক ছিল। ২০২১ সালে শুধু জম্মু ও কাশ্মীরেই সেই জাতীয় সড়কের সংখ্য়া বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১টি। বর্তমানে রাস্তার উন্নয়নের ক্ষেত্রে জম্মু ও কাশ্মীর দেশের মধ্য়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে।

পাশাপাশি তিনি জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগে মাত্র ১ বছরেই জম্মু ও কাশ্মীরে ১১টি টানেল প্রজেক্ট তৈরির অনুমোদন মিলেছে। চেনানি-কিশ্তার হাইওয়েতে ১০ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে চারটি টানেল তৈরির উদ্যোগও নেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতীন গড়করি বলেন, নতুন এই প্রজেক্টগুলি জম্মু ও কাশ্মীরের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থাকে আরও উন্নত করবে। এর মাধ্যমে একদিকে যেমন স্থানীয় বাসিন্দাদের জীবনধারনের মানকে উন্নত করবে, তেমনি ব্যাবসা ও পর্যটনেরও প্রসার ঘটবে। দিল্লি- জম্মু কিংবা জম্মু থেকে শ্রীনগর এক্সেপ্রেসওয়েতে প্রায় অর্ধেক সময়ে গন্তব্যে পৌঁছানো যাচ্ছে। 

 

বন্ধ করুন