বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দুইবারের চেষ্টায় স্ত্রীকে বিষধর সাপের ছোবল খাইয়ে নৃশংস খুন! অপরাধ প্রমাণ স্বামীর
স্ত্রীকে খুন করার অভিযোগ প্রমাণিত হয় স্বামী সূরযের বিরুদ্ধে (ছবি সোশ্যাল মিডিয়া)
স্ত্রীকে খুন করার অভিযোগ প্রমাণিত হয় স্বামী সূরযের বিরুদ্ধে (ছবি সোশ্যাল মিডিয়া)

দুইবারের চেষ্টায় স্ত্রীকে বিষধর সাপের ছোবল খাইয়ে নৃশংস খুন! অপরাধ প্রমাণ স্বামীর

  • ভারতীয় দণ্ডবিধির চারটি ধারায় অপরাধ প্রমাণিত হয়েছে অভিযুক্ত স্বামীর বিরুদ্ধে। 

বেনজির ভাবে স্ত্রীকে খুন করে অপরাধী প্রমাণিত হলেন স্বামী। একবার নয়, বরং দুইবার সাপের ছোবল খাইয়ে ২৫ বছর বয়সী স্ত্রী উথরাকে খুন করে সূরয। সেই মামলায় আদালতে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণ হয়েছে। ভারতীয় দণ্ডবিধির চারটি ধারায় অপরাধী প্রমাণিত হয়েছে সূরয।

জানা গিয়েছে, ২০২০ সালের ৭ মে মারা যান উথরা। সাপের ছোবলে মৃত্যু হয় তাঁর। এর আগে ২০২০ সালের মার্চেই তাঁকে সাপে কামড়েছিল। প্রথমবার সাপের শিকার হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিল উথরা। দীর্ঘ ৫২ দিন হাসপাতালে ছিলেন তিনি। এই সময় তাঁর প্লাস্টিক সার্জারিও হয়। প্রথমবার একটি ভাইপার সাপ কামড়েছিল তাঁকে। পরে মে মাসে আরও বিষধর কোবরা সাপ কামড়ায় উথরাকে। এরপর আর তাঁকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি।

প্রাথমিক ভাবে সবাই বিষয়টিকে দুর্ঘটনা হিসেবেই দেখেছিলেন। তবে সন্দেহ হয়েছিল উথরার বাবা আর ভাইয়ের। তাঁরা পুলিশে অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করেন। তদন্ত করে পুলিশ জানতে পারে যে উথরার মৃত্যুর বিষয়ি অনেকদিন ধরে পরিকল্পনা করছি সূরয। সেই এই লক্ষ্যে দুই বার সাপ ভাড়া নেয় সুরেশ নামক একজনের কাছ থেকে। প্রথম ছোবলের পর উথরার শরীর ভেঙে পড়ে। সেই পরিস্থিতিতেই আরও বিষধর সাপের ছোবল খাইয়ে নিজের স্ত্রীকে খুন করে সূরয।

পুলিশ জানায়, সূরয কোনও সময়ই অনুতাপ দেখআয়নি এই খুনের বিষয়ে। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ (হত্যা), ৩০৭ (হত্যার চেষ্টা), ৩২৭ (সম্পত্তি আত্মসাত করতে আঘাত) এবং ২০১ ধারায় অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে কোল্লাম জেলার অতিরিক্ত দায়রা আদালতে।

বন্ধ করুন