বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দু'বার বিষাক্ত সাপের ছোবল খাইয়ে স্ত্রী'কে খুন, 'ডবল' যাবজ্জীবন যুবকের
দু'বার বিষাক্ত সাপের ছোবল খাইয়ে স্ত্রী'কে খুন, 'ডবল' যাবজ্জীবন যুবকের (ছবি সোশ্যাল মিডিয়া)
দু'বার বিষাক্ত সাপের ছোবল খাইয়ে স্ত্রী'কে খুন, 'ডবল' যাবজ্জীবন যুবকের (ছবি সোশ্যাল মিডিয়া)

দু'বার বিষাক্ত সাপের ছোবল খাইয়ে স্ত্রী'কে খুন, 'ডবল' যাবজ্জীবন যুবকের

উথরার পরিবারের সদস্যরা আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে কেরালা হাইকোর্টে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

দু'বারের চেষ্টায় ‌বিষাক্ত সাপের ছোবলে স্ত্রী'কে খুন করেছিলেন। সেই মামলায় স্বামীকে দ্বিগুণ যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের নির্দেশ দিয়েছে কেরালার কোল্লামের নিম্ন আদালত।

২৫ বছরের স্ত্রী উথরাকে খুনের ঘটনায় ৩২ বছর বয়সি পি সুরজকে বুধবার দোষী সাব্যস্ত করে কেরালার আদালত। তবে আদালত এদিন জানিয়ে দেয়, বয়সের কথা বিচার করে সুরজকে ফাঁসির সাজা দেওয়া হচ্ছে না। কারণ, ফাঁসির সাজা দিতে ভুল বার্তা যেতে পারে। আদালত জানিয়েছে, সুরজকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। তবে যাবজ্জীবনের সাজা ১৭ বছর পর শুরু হবে। অর্থাৎ বাকি জীবনটা জেলের মধ্যেই কাটাতে হবে সুরজকে।

আদালতের এই রায় খুশি নন উথরার মা–বাবা। তাঁদের বক্তব্য, এই ধরনের ব্যক্তির ফাঁসির সাজা হওয়া উচিত। উথরার পরিবারের সদস্যরা আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে কেরালা হাইকোর্টে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। উচ্চতর আদালতেও অভিযুক্তের ফাঁসির সাজা চাইবেন তাঁরা। উল্লেখ্য, গত বছর ফেব্রুয়ারিতে কোবরার ছোবলে স্ত্রীকে মেরে ফেলার ছক কষেছিলেন সুরজ। তখন চিকিৎসার পর বেঁচে যান উথরা। কিন্তু এরপর ফের চেষ্টা চালানো হয়। কিন্তু দ্বিতীয়বার উথরাকে আর বাঁচানো সম্ভব হয়নি। উথরার মৃত্যুর পর গত বছর মে মাসে আদালতের দ্বারস্থ হন তাঁর মা–বাবা। তাঁরা তদন্তকারীদের জানিয়েছেন, আরও পণ নেওয়ার দাবিতে প্রায়শই তাঁর মেয়েকে নানাভাবে হেনস্থার শিকার হতে হয়েছে।

বন্ধ করুন