বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Kerala gold smuggling case: বিজয়নের প্রাক্তন ব্যক্তিগত সচিবকে দিনভর জেরা শুল্ক বিভাগের
সকালে এম শিবশংকরের বাড়িতে পৌঁছে তাঁর নামে সমন জারি করেন শুল্ক বিভাগের আধিকারিকরা।
সকালে এম শিবশংকরের বাড়িতে পৌঁছে তাঁর নামে সমন জারি করেন শুল্ক বিভাগের আধিকারিকরা।

Kerala gold smuggling case: বিজয়নের প্রাক্তন ব্যক্তিগত সচিবকে দিনভর জেরা শুল্ক বিভাগের

  • মুখ্যমন্ত্রীর প্রাক্তন ব্যক্তিগত সচিবের পরে স্বপ্না সুরেশের কল লিস্টে রাজ্যের এক মন্ত্রীর নাম পাওয়ার পরে নতুন বিতর্ক শুরু হল।

কেরালা সোনা পাচারকাণ্ডে মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নের প্রাক্তন মুখ্য সচিব এম শিবশংকরকে মঙ্গলবার জেরা করল শুল্ক দফতর। এরই মাঝে অভিযুক্ত স্বপ্না সুরেশের কল লিস্টে রাজ্যের এক মন্ত্রীর নাম পাওয়ার পরে নতুন বিতর্ক শুরু হল।

সম্প্রতি সংবাদ মাধ্যমে সোনা পাচারকাণ্ডের দুই প্রধান অভিযুক্ত সরিত কুমার ও স্বপ্না সুরেশের মোবাইল ফোনের কল লিস্ট ফাঁস হয়েছে। এর মধ্যে স্বপ্নার কল লিস্টে শিবশংকরের সঙ্গে বহু বার কথাবার্তার প্রমাণ মিলেছে। সেই সঙ্গেই পাওয়া গিয়েছে কেরালার উচ্চশিক্ষা মন্ত্রী কে টি জলিলের নাম। 

সংবাদমাধ্যমে নাম ফাঁস হওয়ার পরে তড়িঘড়ি সাংবাদিক সমেমলন ডেকে সাফাই দিতে শুরু করেন জলিল। তিনি জানিয়েছেন, গত ২৭ মে রমজানে খাবারের প্যাকেট বণ্টন সংক্রান্ত বিষয়ে আরব আমিরশাহি দূতাবাসের দফতর থেকে নির্দেশ পেয়েই তিনি স্বপ্নাকে ফোন করেছিলেন। সেই সঙ্গে স্বপ্নার অতীত সম্পর্কে তিনি ওয়াকিবহাল ছিলেন না বলেও জানিয়েছেন মন্ত্রী। 

এ দিকে পাচার মামলায় অন্য অভিযুক্ত সরিত কুমারের কল লিস্টে জলিলের ব্যক্তিগত সচিবের নাম পাওয়া গিয়েছে। এই বিষয়ে প্রশ্ন করতেই মন্ত্রী বলে ওঠেন, এই ব্যাপারে এনআইএ তদন্ত করতে পারে এবং তিনি তা নিয়ে আদৌ উদ্বিগ্ন নন। পরে জলিলকে সমর্থন করেন মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নও। 

৫ জুলাই তিরুবনন্তপুরম বিমানবন্দরে আরম আমিরশাহি দূতাবাসের নামে আসা কনসাইনমেন্ট থেকে ৩০ কেজি অবৈধ সোনা উদ্ধার করে শুল্ক বিভাগ। ঘটনায় এ পর্যন্ত চার জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে, যার অন্যতম রাজ্য সরকারের তথ্য প্রযুক্তি দফতরে কর্মরতা প্রাক্তন তথ্য প্রযুক্তি উপদেষ্টা স্বপ্না সুরেশ। তাঁর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ থাকার কারণে ব্যক্তিগত সচিব এম শিবশংকরকে বদলি করেন মুখ্যমন্ত্রী বিজয়ন। এর পর তদন্তভার ন্যস্ত হয় এনআইএ-র উপরে। 

এ দিন সকালে আইএএস আধিকারিক শিবশংকরের বাড়িতে পৌঁছে তাঁর নামে সমন জারি করেন শুল্ক বিভাগের আধিকারিকরা। আধ ঘণ্টার মধ্যে তিরুবনন্তপুরমে শুল্ক বিভাগের দফতরে জেরার মুখোমুখি হতে পৌঁছন শিবশংকর। এ দিন সন্ধ্যা পর্যন্ত পাওয়া খবরেও তাঁর জেরাপর্ব শেষ হয়নি বলে জানা গিয়েছে। 

ইতিমধ্যে আমিরশাহিতে ফেরার মামলার প্রধান অভিযুক্ত ফইজল ফরিদের নাগাল পেতে এবার ইন্টারপোল-এর সাহায্য চাইতে চলেচে এনআইএ। তদন্তে কেন্দ্রীয় সংস্থাকে সাহায্য করছে ডিরেক্টোরেট অফ রেভেনিউ ইন্টেলিজেন্স, আইবি, ইডি-সহ একাধিক কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা বিভাগ।

 

বন্ধ করুন