বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Kerala: দরিদ্রসীমার নীচে বসবাসকারীদের জন্য বিনামূল্যে ইন্টারনেট! ঘোষণা কেরলে
কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনরাই বিজয়ন। ফাইল ছবি (HT_PRINT)

Kerala: দরিদ্রসীমার নীচে বসবাসকারীদের জন্য বিনামূল্যে ইন্টারনেট! ঘোষণা কেরলে

  • কেরলের মুখ্যমন্ত্রী বৃহস্পতিবার টুইটে জানান, ‘টেলিযোগাযোগ দফতরের কাছ থেকে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার অনুমোদন পেয়েছে। খুব দ্রুত আমাদের কেরল ফাইবার অপটিক নেটওয়ার্ক জনগণের কাছে ইন্টারনেট পরিষেবা পৌঁছে দেবে।’ 

দৃষ্টান্ত তৈরি করতে চলেছে বাম শাসিত কেরল। বর্তমানে অত্যন্ত প্রয়োজনীয় পরিষেবা হল ইন্টারনেট। আর সেই ইন্টারনেট পরিষেবা দরিদ্রসসীমার নীচে বসবাসকারী মানুষদের বিনামূল্যে সরবরাহ করতে চলেছে কেরল সরকার। গতকাল কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনরাই বিজয়ন এ কথা ঘোষণা করেন। এর ফলে ডিজিটাল বিভাজন থাকবে না বলেই মনে করছে কেরল সরকার। কেরল সরকারের এই পদক্ষেপকে গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। রাজ্যের উদ্যোগে এই ধরনের পরিষেবা দেশের রাজ্যগুলির মধ্যে প্রথম। কারণ এখনও পর্যন্ত কোন রাজ্যে দরিদ্রসীমার নীচে বসবাসকারি মানুষদের বিনামূল্যে ইন্টারনেট পরিষেবা দেওয়ার ব্যবস্থা করেনি।

কেরলের মুখ্যমন্ত্রী বৃহস্পতিবার টুইটে জানান, ‘টেলিযোগাযোগ দফতরের কাছ থেকে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার অনুমোদন পেয়েছে। খুব দ্রুত আমাদের কেরল ফাইবার অপটিক নেটওয়ার্ক জনগণের কাছে ইন্টারনেট পরিষেবা পৌঁছে দেবে।’ উল্লেখ্য, কেরলের নিজস্ব অন্তজাল প্রকল্প হিসেবে কেরল ফাইবার অপটিক নেটওয়ার্ক লিমিটেড আগেই তৈরি করেছে বিজয়ান সরকার। ফলে ইন্টারনেট পরিষেবা চালু হয়ে গেলে দরিদ্র মানুষদের জন্য তা সহজলভ্য হওয়ার পাশাপাশি সুবিধাজনক হবে বলেই মনে করছে কেরল সরকার।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালে ইন্টারনেট পরিষেবাকে মানুষের মৌলিক অধিকার বলে ঘোষণা করেছিল কেরল সরকার। তারপরে কেরল ফাইবার অপটিক নেটওয়ার্ক প্রকল্প চালু করেছিল। এই প্রকল্পের জন্য ধার্য করা হয়েছিল ১৫৪৮ কোটি টাকা। এই প্রকল্পে তৈরি হয় কেরল ফাইবার অপটিক নেটওয়ার্ক লিমিটেড। এর মাধ্যমে ৩০ হাজার সরকারি অফিস এবং দরিদ্রসীমার নিচে বসবাসকারী মানুষদের বিনামূল্যে ইন্টারনেট পরিষেবা সরবরাহ করার পরিকল্পনা রয়েছে।

বন্ধ করুন