বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > তালিবানের নিশানায় কেরলের বিধায়ক, চিঠি দিয়ে খুনের হুমকিতে চিন্তায় প্রশাসন
তালিবান যোদ্ধা (ফাইল ছবি )
তালিবান যোদ্ধা (ফাইল ছবি )

তালিবানের নিশানায় কেরলের বিধায়ক, চিঠি দিয়ে খুনের হুমকিতে চিন্তায় প্রশাসন

  • কাবুল দখল করার পর আফগান নাগরিকদের উপর তালিবানের অসহনীয় অত্যাচার শুরু হয়।

আফগানিস্তান তালিবান দখল করার পর থেকে নানা অত্যাচারের ঘটনা সামনে এসেছে। সেই অত্যাচারের সমালোচনা করেছিলেন কেরলের প্রাক্তন মন্ত্রী। তবে সেই সমালোচনার ঝড়টা ছিল ফেসবুকে। আর তার জেরে কেরলের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লিগ (আইইউএমএল) বিধায়ক এমকে মুনিরকে পৃথিবী থেকে সরিয়ে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হল। অর্থাৎ খুন। এই বিষয়টি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন এবং রাজ্য পুলিশের ডিজি’‌র কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন বিধায়ক মুনির।

ঠিক কী হুমকি দেওয়া হয়েছে?‌ এই বিষয়ে বিধায়ক মুনির জানান, কাবুল দখল করার পর আফগান নাগরিকদের উপর তালিবানের অসহনীয় অত্যাচার শুরু হয়। তার বিরুদ্ধে গত ১৭ অগস্ট ফেসবুকে একটি পোস্ট করেছিলাম। তার পরই বৃহস্পতিবার একটি হুমকি চিঠি আসে। সেই চিঠিতে মালয়ালি ভাষায় লেখা হয়েছে, ‘নেটমাধ্যমের ওই পোস্টটি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তুলে না নিলে আপনার পরিণতিও জোসেফের মতো হবে’।

কে এই জোসেফ?‌ কি হয়েছিল তাঁর?‌ বিধায়কের মনে পড়ায় তিনি শিউরে উঠেছেন। ইসলামি জঙ্গি সংগঠনের সমালোচনা করেছিলেন অধ্যাপক টিজে জোসেফ। তার জেরে প্রায় এক দশক আগে অধ্যাপক টিজে জোসেফের হাত কেটে নেওয়া হয়েছিল। পুলিশ সূত্রে খবর, কেরলের কট্টরপন্থী মুসলিম গোষ্ঠী ‘পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া’ (পিএফআই) ওই হামলার জন্য দায়ী ছিল। মুনিরের ক্ষেত্রেও ওই সংগঠনের পক্ষ থেকেই হুমকি এসেছে।

উল্লেখ্য, গত কয়েক বছরে কেরলের বহু যুবক পশ্চিম এবং মধ্য এশিয়ায় গিয়ে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস সংগঠনে যোগ দিয়েছে। এখন তালিবানের বাড়বাড়ন্তে মুনিরকে খুনের হুমকি নিয়ে সতর্ক কেরল পুলিশও। এই বিষয়ে মুনির বলেন, ‘যে হুমকিই আসুক না কেন, আমি কোনও অবস্থাতেই তালিবানের মতো নৃশংস, মানবতা বিরোধী সংগঠনের প্রতি আমার দৃষ্টিভঙ্গি বদলাব না।’ তাঁর নিরাপত্তার কথা ভাবা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

বন্ধ করুন