বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কেন প্রয়োজন নির্বাচনী সংশোধনী বিল? BJP সাংসদদের কারণ বোঝালেন রিজেজু
নির্বাচনী আইন (সংশোধনী) বিলের প্রয়োজনীয়তার বিষয়ে দলীয় সাংসদদের বোঝান কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী কিরেণ রিজিজু (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)
নির্বাচনী আইন (সংশোধনী) বিলের প্রয়োজনীয়তার বিষয়ে দলীয় সাংসদদের বোঝান কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী কিরেণ রিজিজু (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)

কেন প্রয়োজন নির্বাচনী সংশোধনী বিল? BJP সাংসদদের কারণ বোঝালেন রিজেজু

  • আজ বিলটি রাজ্যসভায় পাশ হয়। রাজ্যসভায় বিল পেশ করার আগেই বিজেপির সংসদীয় সভায় এই বিলের প্রয়োজনীয়তা বোঝান কিরেণ রিজিজু।

মঙ্গলবার ভারতীয় জনতা পার্টির সংসদীয় দলের সভায় নির্বাচনী আইন (সংশোধনী) বিলের প্রয়োজনীয়তার বিষয়ে দলীয় সাংসদদের বোঝান কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী কিরেণ রিজিজু। এই বিষয়ে একটি প্রেজেন্টেশন দেন রিজিজু। গতকাল লোকসভায় বিরোধীদের প্রতিবাদের মধ্যে এই বিলটি প্রস্তাবিত হয় এবং গতকালই লোকসভায় অনুমোদিত হয় বিলটি।

আজ বিলটি রাজ্যসভায় পাশ হয়। রাজ্যসভায় বিল পেশ করার আগেই বিজেপির সংসদীয় সভায় এই বিলের খুঁটিনাটি বোঝান কিরেণ রিজিজু। তিনি আগের আইনের ফাঁক সম্পর্কে বোঝান সাংসদদের। তিনি এই বিষয়ে দলীয় সাংসদদের অবগত করে বোঝান কেন নতুন সংশোধনীর প্রয়োজন হয়ে পড়েছে।

এই বিলের প্রস্তাব অনুযায়ী, পরিচয় প্রমাণের জন্য ভোটার হিসেবে নথিভুক্ত করার জন্য রেজিস্ট্রেশন অফিসার আধার কার্ডের নম্বর চাইতে পারেন।  সোমবার লোকসভায় সেই বিল পেশ করেন কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী কিরেণ রিজিজু। সেদিনই বিলটি পাশ হয় সংসদের নিম্ন কক্ষে। আর আজ এই বিলটি অনুমোদিত হল রাজ্যসভায়। আইন মন্ত্রীর দাবি, এই সংশোধনীর মাধ্যমে ভুয়ো ভোটে রাশ টানা সম্ভব হবে। এবং নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় স্বচ্ছ্বতা আসবে বলে দাবি করেন তিনি। 

এদিকে বিলটি ইতিমধ্যেই লোকসভা ও রাজ্যসভায় পাষ হয়েছে। রাষ্ট্রপতির সম্মতির পর তা আইনে পরিণত হবে। যদিও কংগ্রেস-সহ বিরোধী দলগুলি দাবি করতে থাকে, সেই সংশোধনীর মাধ্যমে নাগরিকদের মৌলিক অধিকারে হস্তক্ষেপ করা হবে। কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রীর বক্তব্য, বিরোধীরা যে অভিযোগ করছেন, তা পুরোপুরি ভিত্তিহীন। 

 

 

 

 

 

 

বন্ধ করুন