বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Kurla East Building Collapse: মুম্বইতে চারতলা বাড়ি ভেঙে ১৪ নিহত, আহত ১৩, নির্দেশ তদন্তের
মুম্বইতে ভেঙে পড়ল ৪ তলা ভবন। REUTERS/Niharika Kulkarni (REUTERS)

Kurla East Building Collapse: মুম্বইতে চারতলা বাড়ি ভেঙে ১৪ নিহত, আহত ১৩, নির্দেশ তদন্তের

  • ১৮ ঘণ্টা ধরে মুম্বইয়ের এই ভবনের থেকে উদ্ধার করা হয় আহতদের। নিহতদের অনেকেই ঘটনাস্থলেই মারা যান। জানা গিয়েছে, যে বাড়িটি ভেঙেছে তা ১৯৭৩ সালের প্লটের উপর নির্মিত। ২০১৩ সালেই এই বিল্ডিং বিপজ্জনক বলে ঘোষণা করে মুম্বই পুরসভা।

প্রতীপ আচার্য

চারতলা বাড়ি হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে মুম্বইতে। ঘটনায় ১৩ জন আহত। মুম্বইয়ের কুরলার নায়েক নগরের এই ঘটনা সোমবার গভীর রাতে হয়। তারপর মুম্বইয়ের দমকল ও বিপর্যয় মোকাবিলা বিভাগ একটি যৌথ উদ্ধার কাজে নেমে পড়ে।

১৮ ঘণ্টা ধরে মুম্বইয়ের এই ভবনের থেকে উদ্ধার করা হয় আহতদের। নিহতদের অনেকেই ঘটনাস্থলেই মারা যান। জানা গিয়েছে, যে বাড়িটি ভেঙেছে তা ১৯৭৩ সালের প্লটের উপর নির্মিত। ২০১৩ সালেই এই বিল্ডিং বিপজ্জনক বলে ঘোষণা করে মুম্বই পুরসভা। এরপর ২০১৫ সালে স্থানীয় ওয়ার্ড অফিস বিদ্যুৎ এবং জলের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার পরে বাসিন্দারা ২০১৬ সালে ভবনটির একটি স্ট্রাকচারাল অডিটকরে। অডিট রিপোর্টে বলা হয়েছে যে ভবনটি 'মেরামতযোগ্য;' অবস্থায় ছিল। পৌর কমিশনার, ইকবাল সিং চাহাল মঙ্গলবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং বলেছেন যে এই ঘটনার বিস্তারিত তদন্ত করা হবে।

জানা গিয়েছে, যে বিল্ডিংটি ধসে গিয়েছে তা ডি উইংয়ের ছিল। বিল্ডিংয়ের ডান দিকটি সম্পূর্ণ রূপে পড়ে গিয়েছিল। পুরসভা থেকে বলাই হয়েছিল যে, বাড়িটির বাকি অংশও ভেঙে পড়বে। এর জন্য বেশ কয়েকটি সতর্কতামূলক ব্যবস্থাও নেওয়া হয়েছিল। তবে শেষ রক্ষা হয়নি। বাড়ি ভেঙে পড়ার ফলে আহতদের স্থানীয় রাজওয়াড়ি ও সিওন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই ১৪ জনের মৃত্যুর দুঃসংবাদ আসে। এদিকে, ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী আদিত্য ঠাকরে। সেখানে তিনি মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান। এছাড়াও উদ্ধব সরকারের তরফে ক্ষতিপূরণেরও ঘোষণা করা হয়।

বন্ধ করুন