বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মাত্রাতিরিক্ত গরম পড়তে পারে ২০২১-এর গ্রীষ্মে, বলছে রিপোর্ট
ফাইল ছবি : পিটিআই  (PTI)
ফাইল ছবি : পিটিআই  (PTI)

মাত্রাতিরিক্ত গরম পড়তে পারে ২০২১-এর গ্রীষ্মে, বলছে রিপোর্ট

প্রশান্ত মহাসাগরীয় এই শীতল ঢেউয়ের প্রভাবে ভারতে তাপমাত্রা কমে। সেই লা নিনার বছরে ভাল বৃষ্টিপাতও হয়।

কমছে প্রশান্ত মহাসাগরের শীতল স্রোত 'লা নিনার' শৈত্য সৃষ্টিকারী প্রভাব। আগামী এপ্রিল মাস নাগাদ এই স্রোতের প্রভাব সম্পূর্ণ শূন্য হয়ে যেতে পারে বলে ধারণা আবহাওয়া দফতরের (IMD)। এর ফলে কী হতে পারে?

লা নিনার শৈত্যের প্রভাব কমা মানেই ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পাবে তাপমাত্রা। চলতি বছরের শুরুতে জানুয়ারি মাসেই সর্বোচ্চ মাত্রায় পৌঁছেছিল 'লা নিনা এফেক্ট'। তারপরেই ফেব্রুয়ারি থেকে তা কমতে শুরু করেছে।

প্রশান্ত মহাসাগরীয় এই শীতল ঢেউয়ের প্রভাবে ভারতে তাপমাত্রা কমে। সেই লা নিনার বছরে ভালো বৃষ্টিপাতও হয়। কিন্তু আপাতত ‘লা নিনা’-র প্রভাব কমতে থাকায় ঠিক উলটোটাই হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। অর্থাৎ আসন্ন গ্রীষ্মে বেশ গরম পড়তে পারে বলে মনে করছেন আবহবিদরা। সেই সঙ্গে বর্ষায় বৃষ্টিপাতের ক্ষেত্রেও পড়তে পারে প্রভাব। অপর্যাপ্ত বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

যদিও পুরো বিষয়টা শুধুমাত্র লা নিনার উপর নির্ভরশীল নয়। স্থানীয় বিভিন্ন বিষয়ের উপরেও আবহাওয়া নির্ভর করে। তবে এর মধ্যে স্বস্তির খবর একটাই। লা নিনা হ্রাসপ্রাপ্ত হলেও এল নিনোর এখনই কোনও সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন আবহবিদরা।

এল নিনো প্রশান্ত মহাসাগরীয় উষ্ণ স্রোত। তিন থেকে পাঁচ বছর অন্তর এর আবির্ভাব হয়। এর প্রভাবে ভারতে অত্যন্ত বেশি হারে উষ্ণতা বৃদ্ধি পায়। বৃষ্টিপাতের অভাব দেখা দেয়। এর প্রভাবে খরাও হয়। তবে এ বছর তার কোনও সম্ভাবনা নেই বলেই আপাতত মনে করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন