বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দেশে স্বাস্থ্যকর খাবার কেনার সামর্থ নেই ৭১ শতাংশের! ভয়াবহ তথ্য তুলে ধরল রিপোর্ট
পুষ্টির অভাব বড়সড় আকার নিচ্ছে।

দেশে স্বাস্থ্যকর খাবার কেনার সামর্থ নেই ৭১ শতাংশের! ভয়াবহ তথ্য তুলে ধরল রিপোর্ট

  • কিন্তু কেন এই বিশাল অংশের মানুষের কাছে পুষ্টিকর খাবার পৌঁছচ্ছেনা? এর জবাবে রিপোর্ট বলছে, মূলত খাবারের দাম দেশে এতটাই বেশি, যে পুষ্টিকর খাদ্য কেনার মতো সামর্থ নেই অনেকেরই।

দেশে বিভিন্ন মাইলস্টোন ঠিক করে দিয়ে অগ্রগতির লক্ষ্যে এগিয়ে যাওয়া হচ্ছে। তৈরি হচ্ছে, নানান নতুন ইমারত, দেশের উন্নতিতে নেওয়া হচ্ছে বিভিন্ন পদক্ষেপ। এদিকে, এরই মাঝে দেশের মানুষের পরিস্থিতি তুলে ধরল সেন্টার ফর সায়েন্স অ্যান্ড এনভায়রমেন্ট ও ডাউন টু আর্থ ম্যাগাজিন। সেখানে জানানো হয়েছে দেশের কত শতাংশ মানুষ সঠিক পুষ্টি থেকে বঞ্চিত রয়েছেন।

'স্টেট অফ ইন্ডিয়ান এনভারনমেন্ট ২০২২: ইন ফিগার্স' এর একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, ভারতের ৭১ শতাংশ মানুষের পুষ্টিকর খাদ্যগ্রহণের ক্ষমতা নেই। পুষ্টিকর খাদ্যের অভাবে দেশের ১৭ লক্ষ মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন, বলেও দাবি করছে রিপোর্ট। কিন্তু কেন এই বিশাল অংশের মানুষের কাছে পুষ্টিকর খাবার পৌঁছচ্ছেনা? এর জবাবে রিপোর্ট বলছে, মূলত খাবারের দাম দেশে এতটাই বেশি, যে পুষ্টিকর খাদ্য কেনার মতো সামর্থ নেই অনেকেরই। গত এক বছরের খাবারের দাম সংক্রান্ত সূচক সিএফপিআই মুদ্রাস্ফীতি ৩২.৭ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়াও ভোক্তা মূল্য সূচক বা সিপিআইয়ের হারও বেড়েছে ৮৪ শতাংশ। এরসঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে সংশ্লিষ্ট খরচ। সহজে বলতে গেলে, পুষ্টিকর খাবারের দাম ভারতে যেভাবে বেড়েছে, তা অনেকেরই ধরা ছোঁয়ার বাইরে। ফলে প্রকৃত পুষ্টির অভাব থেকেই যাচ্ছে। সকাল-সন্ধ্যে কি কফি ছাড়া চলে না? বাড়বে আয়ু, পাবেন বহু উপকার, কী বলছে গবেষণা!

 

ফুড অ্যান্ড এগ্রিকালচার অর্গানাইজেশনের বক্তব্য, যদি কোনও ব্যক্তির আয়ের ৬৩ শতাংশ বেশি হয় স্বাস্থ্যকর খাবারের দাম, তাহলে তা তাঁর ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে যায়। এদিকে যেভাবে দেশে শাক ,সবজির মতো অতি প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বাড়ছে, তাতে ধরা ছোঁয়ার বাইরে চলে যাচ্ছে বহু খাবার। ২০২১ সালের গ্লোবাল নিউট্রিশায়ন রিপোর্ট বলছে, গোটা বিশ্বের ৪১ শতাংশ মানুষ স্বাস্থ্যকর খাবার কিনতে পারেন না। 'ডাউন টু আর্থ' ম্যাগাজিনের ম্যানেজিং এডির রিচার্ড মহাপাত্রের কথায়, বিভিন্ন তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গিয়েছে ২০২২ সালের মার্চ থেকে এপ্রিলে শহরের চেয়ে বেড়েছে গ্রামের খাদ্য সামগ্রীর দাম। যার প্রভাব খাদ্যাভাসে পড়ছে। ফলে শরীরের চাহিদা অনুযায়ী অনেকেই পাচ্ছেন না পুষ্টিকর খাবার। উল্লেখ্য, পুষ্টিকর খাদ্যের অভাবে শ্বাসকষ্ট, ডায়াবেটিস,ক্যানসার, স্ট্রোকের মতো সমস্যা হতে পারে। তবে রিপোর্টে আশার বার্তা একটাই যে, আগের থেকে ভারতীয় গৃহস্থে খাদ্যাভ্যাসের পরিস্থিতি খানিকটা পাল্টালেও তা স্বস্থ্যসম্মত হয়ে উঠতে পারেনি।

বন্ধ করুন