বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Leicester Violence: ‘লেস্টারে সাম্প্রদায়িক হিংসায় জড়িত ছিল না RSS’, প্রকাশ্যে নয়া রিপোর্ট

Leicester Violence: ‘লেস্টারে সাম্প্রদায়িক হিংসায় জড়িত ছিল না RSS’, প্রকাশ্যে নয়া রিপোর্ট

লেস্টারে হিন্দু-মুসলিম সংঘর্ষে ধৃত ৪৭। (ছবি সৌজন্যে টুইটার)

বিভিন্ন রিপোর্টে দাবি করা হয়েছিল, আরএসএস বা হিন্দুত্ববাদীদের উস্কানিতেই এই হিংসা ছড়িয়েছিল। তবে সাম্প্রতিক এক রিপোর্টে সেই দাবি খারিজ করে দেওয়া হয়। হেনরি জ্যাকসন সোসাইটি’স সেন্টার অন র‌্যাডিক্যালাইজেশন অ্যান্ড টেররিজম-এর রিপোর্টে দাবি করা হল, সন্ত্রাসবাদ এবং মৌলবাদের সঙ্গে যুক্ত ইনফ্লুয়েন্সাররাই ভুয়ো খবরের মাধ্যমে এই উত্তেজনা ছড়িয়েছে।

গত অগস্টে এশিয়া কাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের পরই ব্রিটেনের লেস্টারে ভারতীয় বংশোদ্ভূত এবং পাকিস্তানি বংশোদ্ভূতদের মধ্যে সাম্প্রদায়িক হিংসার ঘটনা ঘটেছিল। বিভিন্ন রিপোর্টে দাবি করা হয়েছিল, আরএসএস বা হিন্দুত্ববাদীদের উস্কানিতেই এই হিংসা ছড়িয়েছিল। তবে সাম্প্রতিক এক রিপোর্টে সেই দাবি খারিজ করে দেওয়া হয়। হেনরি জ্যাকসন সোসাইটি’স সেন্টার অন র‌্যাডিক্যালাইজেশন অ্যান্ড টেররিজম-এর রিপোর্টে দাবি করা হল, সন্ত্রাসবাদ এবং মৌলবাদের সঙ্গে যুক্ত ইনফ্লুয়েন্সাররাই ভুয়ো খবরের মাধ্যমে এই উত্তেজনা ছড়িয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২৮ অগস্ট এশিয়া কাপে ভারত ও পাকিস্তানের ক্রিকেট ম্যাচের পর যুক্তরাজ্যের লেস্টারে সহিংসতার ঘটনা ঘটে। সহিংসতায় জড়িত থাকার অভিযোগে সেই দেশে ৪৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। অনেক রিপোর্টে দাবি করা হয়েছিল, এই হিংসা চলাকালীন আরএসএস-এর সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগ ওঠে কিছু সংগঠনের বিরুদ্ধে। তবে সদ্য প্রকাশিত রিপোর্টে সেই সব অভিযোগ খারিজ করা হয়।

শার্লট লিটলউডের লেখা রিপোর্টে লেখা হয়, ‘যুক্তরাজ্যে হিন্দু জাতীয়তাবাদী উপস্থিতির প্রমাণ ক্ষীণ। কিছু সংগঠনের বিরুদ্ধে আরএসএস-এর সাঙ্গে যোগাযোগের অভিযোগ ওঠে। দাবি করা হয়, হিংসার সময় আরএসএস-এর সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা যুক্তরাজ্য সফরে ছিলেন। এই অভিযোগ দুই সম্প্রদায়ের সম্পর্কের জন্য সমস্যার এবং এটি নিয়ে আরও গভীর তদন্তের প্রয়োজন।’

এদিকে রিপোর্টে আরও লেখা হয়, ‘আরএসএস-এর সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগের ফলে অনেক হিন্দু যুবক নিরাপত্তার জন্য সাময়িকভাবে অন্যত্র চলে যেতে বাধ্য হয়েছিলেন। যুক্তরাজ্যে কখনও হিন্দু চরমপন্থী সন্ত্রাসী হামলা হয়নি। লেস্টারের ঘটনায় যে যুবকদের দিকে অভিযোগের আঙুল, তাদের সঙ্গে আরএসএস-এর সাথে কোনও সম্পর্ক ছিল না।’

বন্ধ করুন