বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > LIC Share Price: শুরুতেই লোকসান! তাহলে শেয়ার কিনবেন, রাখবেন নাকি ছেড়ে দেবেন?
শেয়ার বাজারে দুর্বল অভিষেক এলআইসির। (ছবি সৌজন্যে এএফপি)

LIC Share Price: শুরুতেই লোকসান! তাহলে শেয়ার কিনবেন, রাখবেন নাকি ছেড়ে দেবেন?

  • LIC Share Price: ঝিমিয়ে শেয়ার বাজারে অভিষেক হয়েছে জীবন বিমা নিগমের (এলআইসি)। যেখানে প্রতিটি ইক্যুইটি শেয়ারের সর্বোচ্চ দাম ছিল ৯৪৯ টাকা, সেখানে ৮৬৭ টাকায় দৌড় শুরু করেছে। সেই পরিস্থিতিতে বিনিয়োগকারীদের একাংশের মনে প্রশ্ন উঁকি মারছে, তাহলে কি শেয়ার দেওয়া উচিত নাকি ধরে রাখা উচিত?

আশঙ্কাই সত্যি হয়েছে। ঝিমিয়ে শেয়ার বাজারে অভিষেক হয়েছে জীবন বিমা নিগমের (এলআইসি)। যেখানে প্রতিটি ইক্যুইটি শেয়ারের সর্বোচ্চ দাম ছিল ৯৪৯ টাকা, সেখানে ৮৬৭ টাকায় দৌড় শুরু করেছে। সেই পরিস্থিতিতে বিনিয়োগকারীদের একাংশের মনে প্রশ্ন উঁকি মারছে, তাহলে কি শেয়ার দেওয়া উচিত নাকি ধরে রাখা উচিত?

বাজারের বিশেষজ্ঞদের মতে, যাঁরা এলআইসি আইপিও প্রক্রিয়ার মাধ্যমে শেয়ার পেয়ে নথিভুক্তকরণের জন্য আবেদন করেছিলেন, তাঁরা শেয়ারপিছু ৮০০ টাকা ‘স্টপ লস’ (কোনও নির্দিষ্ট দাম) পর্যন্ত বিনিয়োগ করে রাখতে পারেন। শেয়ারপিছু ৭৩৫ টাকার আশপাশে ‘স্টপ লস’ থাকলে ধাপে ধাপে নয়া বিনিয়োগকারীরা এলআইসির শেয়ার কিনতে পারেন।

(LIC Share Price LIVE Update - কী অবস্থা এখন? দেখে নিন এখানে)

বিষয়টি নিয়ে ‘হিন্দুস্তান টাইমস’ গ্রুপের 'লাইভ মিন্ট'-এ আইআইএফএল সিকিউরিটিজের (রিসার্চ) ভাইস প্রেসিডেন্ট অনুজ গুপ্তা জানান, শুধুমাত্র ‘সেকেন্ডারি মার্কেটে’ দুর্বল প্রবণতার জন্যই কম দামে শেয়ার বাজারে অভিষেক হয়েছে এলআইসির। যাঁরা এলআইসির আইপিও প্রক্রিয়ার মাধ্যমে শেয়ার পেয়েছেন এবং দীর্ঘকালীন সময়ের দিকে তাকিয়ে বিনিয়োগ করেছেন, তাঁরা এই দুর্বলতার বিষয়টিকে সুযোগ হিসেবে বিবেচনা করতে পারেন। 

তাঁর মতে, যে দামে নথিভুক্ত করা হয়েছে, সেই স্তর থেকে প্রতি পাঁচ শতাংশ পতনে পুঞ্জীভূত করার পরামর্শ দিয়েছেন আইআইএফএল সিকিউরিটিজের (রিসার্চ) ভাইস প্রেসিডেন্ট। সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, প্রতিটি শেয়ারের দাম ৭৩০ টাকার স্তরের উপরে যতক্ষণ থাকবে, ততক্ষণ ধাপে ধাপে এলআইসির শেয়ার কিনতে পারেন নয়া বিনিয়োগকারীরা।

আরও পড়ুন: How Big is LIC: SBI সহ একাধিক ব্যাঙ্কে শেয়ার রয়েছে LIC-র পকেটে, ঠিক কতটা বড় এই বিমা সংস্থা?

একইসুরে দুর্বল অভিষেক সত্ত্বেও এলআইসির শেয়ার ধরে রাখার পরামর্শ দিয়েছেন ট্রেডিংগোর প্রতিষ্ঠাতা পার্থ ন্যাতি। তিনি জানিয়েছেন, বাজারের নেতিবাচক প্রবণতার জন্য শেয়ার বাজারে দুর্বল অভিষেক হয়েছে এলআইসির। তবে প্রতিযোগিতামূলক ক্ষেত্রে একাধিক সুযোগ-সুবিধা আছে এলআইসির হাতে। সেইসঙ্গে আরও একাধিক সুবিধা আছে। সেই পরিস্থিতিতে দুর্বল শুরু সত্ত্বেও দীর্ঘকালীন সময়ের কথা ভেবে বিনিয়োগকারীদের শেয়ার ধরে রাখার পরামর্শ দিয়েছেন ট্রেডিংগোর প্রতিষ্ঠা।

(বিশেষ দ্রষ্টব্য: বিশেষজ্ঞদের মত ব্যক্তিগত। তা হিন্দুস্তান টাইমস বাংলার মত নয়।)

বন্ধ করুন