বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > চেন্নাই-কলকাতা হাইওয়েতে ১৩ ট্রাক চালককে খুন, 'মুন্নাভাই' সহ ১২ জনের ফাঁসির আদেশ
'মুন্নাভাই' সহ ১২ জনের ফাঁসির আদেশ
'মুন্নাভাই' সহ ১২ জনের ফাঁসির আদেশ

চেন্নাই-কলকাতা হাইওয়েতে ১৩ ট্রাক চালককে খুন, 'মুন্নাভাই' সহ ১২ জনের ফাঁসির আদেশ

  • ১৩ বছর আগে চেন্নাই-কলকাতা হাইওয়েতে ৬ ট্রাক চালক সহ মোট ১৩ জনকে খুনের মামলায় মহম্মদ আব্দুল সামাদ ওরফে মুন্নাভাই সহ ১২ জন দুষ্কৃতীকে মৃত্যুদণ্ডের সাজা শোনাল অন্ধ্রপ্রদেশের আদালত।

চাঞ্চল্যকর এক রায়দানের মাধ্যমে অন্ধ্রপ্রদেশের অঙ্গোলের এক আদালত ১২ জন দুষ্কৃতীকে ফাঁসির সাজার রায় শোনাল। ১৩ বছর আগে চেন্নাই-কলকাতা হাইওয়েতে ৬ ট্রাক চালক সহ মোট ১৩ জনকে খুনের মামলায় মহম্মদ আব্দুল সামাদ ওরফে মুন্নাভাই সহ ১২ জন দুষ্কৃতীকে মৃত্যুদণ্ডের সাজা শোনাল অন্ধ্রপ্রদেশের আদালত। অভিযোগ ছিল, চালক ও খালাসিদের খুন করে তাদের দেহ মাটিতে পুঁতে দিত মুন্নাভাই সহ ১২ জন দুষ্কৃতী। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে ২০০৮ সাল থেকে এদের বিরুদ্ধে মামলা চলছে।

এদিন রায়দানের সময় আদালতের তরফে বলা হয়, আসামীরা এমন ঘটনা ঘটিয়েছে, যা বিরল থেকে বিরলতম অপরাধ হিসেবেই গণ্য করা হবে। তাই তাদেরকে ফাঁসির আদেশ দেওয়া হল। উল্লেখ্য, চেন্নাই-কলকাতা হাইওয়েতে ডাকাতি ও খুন করার তিনটি মামলা ছিল মুন্নাভাই ও তার গ্যাংয়ের বিরুদ্ধে। গ্যাংয়ের মাথা, মুন্নার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনের মামলাও রয়েছে। ২০১৩ সালে মুন্না জামিনে ছাড়া পেয়ে কুর্নুলে চলে যায়। সেখানে সে এক ব্যবসায়ীকে খুন করার ছক কষেছিল। তারপর ২০১৪ সালে সে আবার গ্রেফতার হয়েছিল।

অভিযোগ, তারা প্রথমে লোহার রড দিয়ে মানুষদের আক্রমণ করতেন, তারপর তাদের থেকে সব কেড়ে বন্দুক দিয়ে গুলি করে মারতেন। ২০০৮ সালে তাদের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা শুরু হয়। তাদের বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ, প্রমাণ লোপাটের জন্য মৃতদেহগুলি মাটিতে পুঁতে দিত এই গ্যাং। যদিও তাদের বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগই প্রমাণিত হয়েছে। যার ভিত্তিতে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন বিচারক।

বন্ধ করুন