কেন্দ্রের আপত্তিতে লকডাউনে শিথিলতা প্রত্যাহার কেরালার (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য মিন্ট)
কেন্দ্রের আপত্তিতে লকডাউনে শিথিলতা প্রত্যাহার কেরালার (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য মিন্ট)

Lockdown 2.0: কেন্দ্রের আপত্তিতে লকডাউনে শিথিলতা প্রত্যাহার কেরালার

  • কেরালার সিদ্ধান্তে অত্যন্ত ক্ষুব্ধ হয়েছিল কেন্দ্র। তা নিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছিল।

একাধিক ক্ষেত্রে লকডাউন শিথিলের পথে হাঁটায় আপত্তি জানিয়েছিল কেন্দ্র। লকডাউনের নির্দেশিকা মেনে চলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। তারপরই লকডাউনের শিথিলতা প্রত্যাহার করে নিল কেরালা।

আরও পড়ুন : Lockdown 2.0: কেন খিদে মেটাতে পারছেন না, নগদ দিচ্ছেন না কেন, মোদী-সীতারামনকে প্রশ্ন চিদম্বরমের

সোমবার পুর এলাকা-সহ বিভিন্ন জায়গায় রেস্তোরাঁ, ক্ষুদ্র, ছোট ও মাঝারি শিল্প খোলার অনুমতি দিয়েছিল কেরালা। এছাড়াও ওয়ার্কশপ, সেলুন, বইয়ের দোকান, শহর ও মফঃস্বলের মধ্যে স্বল্প দূরত্বের বাস চালু, চারচাকা গাড়ির পিছনের সিটে দু'জন ও স্কুটারে পিছনে বসার ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছিল।

আরও পড়ুন : করোনা মোকাবিলায় প্রশংসার মাঝেই কেরালা সরকারের বিরুদ্ধে তথ্য ফাঁসের অভিযোগ

তাতে অত্যন্ত ক্ষুব্ধ হয়েছিল কেন্দ্র। কেরালার মুখ্যসচিবকে লেখা চিঠিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব অজয় ভাল্লা পরিষ্কার করে দিয়েছিলেন, কেন্দ্রের নির্দেশিকা লঙ্ঘনের বিষয়টি একেবারেই ভালোভাবেই নেওয়া হয়নি। কোনওভাবে সেই নিয়ম লঙ্ঘন করা যাবে না এবং কড়া হাতে লকডাউন লাগু করার বিষয়টিও যে নির্দেশিকাতেও বলা হয়েছে, তা বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছিল।

আরও পড়ুন : Lockdown 2.0: জনধন অ্যাকাউন্টের টাকা তোলার লাইনে দেড় ঘণ্টা, মৃত্যু বৃদ্ধার

সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টের পর্যবেক্ষণ তুলে ধরে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব জানিয়েছিলেন, জনগণের সুরক্ষার স্বার্থে রাজ্য সরকার, জনগণ-সহ সবাইকে কেন্দ্রের নির্দেশিকা মেনে চলার কথা বলা হয়েছে। চিঠির বয়ানে বলা হয়েছিল, 'কোনওরকম শিথিলতা ছাড়া গত ১৫ ও ১৬ এপ্রিলের কেন্দ্রের সংশোধিত নির্দেশিকা মেনে কেরালা সরকারের নির্দেশিকা সংশোধনের আর্জি জানাচ্ছি।'

আরও পড়ুন : কানাডায় শ্বেতাঙ্গ বন্দুকবাজের হামলা, মৃত ১৬, বারো ঘণ্টা পর খতম আততায়ী

যদিও কেরালার বাম সরকার দাবি করে, লকডাউন শিথিলের বিষয়টি আগেভাগেই দিল্লিতে জানানো হয়েছিল। কেরালার পর্যটনমন্ত্রী কাদকাপল্লী সুরেন্দ্রান বলেন, 'কেন্দ্রের নির্দেশিকা মেনেই আমরা ছাড় দিয়েছি। আমরা মনে হয় কোথাও একটা ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। তার উপর ভিত্তি করে ব্যাখ্যা চেয়েছে কেন্দ্র। তারপরও আমরা বিষয়টি মিটিয়ে নেব। মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কেন্দ্র ও রাজ্য একই জায়গায় দাঁড়িয়ে রয়েছে।'

আরও পড়ুন : কোন পশুর মাধ্যমে মানবদেহে করোনা সংক্রমণ, চলেছে বিশ্বজুড়ে তল্লাশি

কেরালা সরকারের তরফে সেই ব্যাখ্যার কিছুক্ষণের মধ্যেই লকডাউনের শিথিলতা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

বন্ধ করুন