বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ১৫০০ করোনা রোগী, ৭৬ জনের মৃত্যুর পর অবশেষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী পেল মধ্যপ্রদেশ
গরীবদের ত্রাণ বিলি
গরীবদের ত্রাণ বিলি

১৫০০ করোনা রোগী, ৭৬ জনের মৃত্যুর পর অবশেষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী পেল মধ্যপ্রদেশ

পাঁচ মন্ত্রীকে দফতর বণ্টন করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান।

দেশের মধ্যে করোনায় আক্রান্তের তালিকায় পঞ্চম, করোনায় মৃতের ক্রমাঙ্কে তৃতীয়। হটস্পট ইনদোর নিয়ে রীতিমত ঘুম ছুটে যাচ্ছিল কেন্দ্রের। তারমধ্যেই স্বাস্থ্যমন্ত্রী ছাড়াই চলছিল মধ্যপ্রদেশ। কারণ এতদিন মন্ত্রীসভা গঠনই করেননি শিবরাজ সিং চৌহান। অবশেষে প্রায় একমাস বাদে সম্পন্ন হল সেই প্রক্রিয়া।

স্বাস্থ্য ও গৃহ মন্ত্রকের দায়িত্ব আপাতত সামলাবেন নরোত্তম মিশ্র। এর আগেও তিনি দুই বার স্বাস্থ্যমন্ত্রী ছিলেন। গত কংগ্রেস জমানায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী তুলসী সিলাভাটকে দেওয়া হয়েছে জলসম্পদ মন্ত্রক। মুখ্যমন্ত্রী শিবারাজ চৌহান বলেন যে আপাতত করোনা মোকাবিলার জন্য সেই অনুসারে মন্ত্রক বণ্টন হয়েছে। লকডাউন উঠে যাওয়ার পর পুরো মন্ত্রীসভা গঠিত হবে ও সেই অনুসারে মন্ত্রক দেওয়া হবে।

নরোত্তম মিশ্র সমস্ত দফতরের মধ্যে যোগসূত্র হবেন। একই সঙ্গে সরকারি ও বেসরকারি সংস্থা, শিল্পপিতি, আম-আদমির সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলবেন তিনি। তাদের ফিডব্যাক অনুযায়ী কাজ করবে রাজ্য সরকার।

প্রসঙ্গত ভারতে যেই সময় ধীরে ধীরে ছড়াচ্ছে করোনা ভাইরাস, তখনই মধ্যপ্রদেশে তুঙ্গে ছিল রাজনৈতিক টানাপোড়েন। ইস্তফা দেন ১৬ জন কংগ্রেস বিধায়ক, দল ছাড়েন জ্যৌতিরাদিত্য সিন্ধিয়া। সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারানোয় ইস্তফা দেন কমলনাথ। ২৩-শে মার্চ চতুর্থবারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব নেন শিবরাজ সিং চৌহান। তবে এতদিন কোনও স্বাস্থ্যমন্ত্রী না থাকায়, মধ্যপ্রদেশে পরিস্থিতি এতটা খারাপ হয়েছে বলে বিরোধীদের অভিযোগ। ভোপালে মারা গিয়েছেন বেশ কিছু গ্যাস লিকে আক্রান্ত ব্যক্তিও। কেন্দ্রের হিসাবে এই মুহূর্তে মধ্যপ্রদেশে করোনা আক্রান্ত ১৫৫২, মৃত ৭৬। অবশেষে গিয়ে একজন স্বাস্থ্যমন্ত্রী পেল রাজ্য।


বন্ধ করুন