বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > লাগাতার বাড়ছে করোনা আক্রান্ত, সম্পূর্ণ লকডাউনের পথে হাঁটতে পারে মহারাষ্ট্র
লাগাতার বাড়ছে করোনা আক্রান্ত, সম্পূর্ণ লকডাউনের পথে হাঁটতে পারে মহারাষ্ট্র। (ছবি সৌজন্য ব্লুমবার্গ)
লাগাতার বাড়ছে করোনা আক্রান্ত, সম্পূর্ণ লকডাউনের পথে হাঁটতে পারে মহারাষ্ট্র। (ছবি সৌজন্য ব্লুমবার্গ)

লাগাতার বাড়ছে করোনা আক্রান্ত, সম্পূর্ণ লকডাউনের পথে হাঁটতে পারে মহারাষ্ট্র

  • প্রতিদিন সারা দেশে যত সংখ্যক লোক নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন, তার অর্ধেক লোকই আক্রান্ত হয়েছেন মহারাষ্ট্রে।

মহারাষ্ট্রে পুরোপুরি লকডাউনের পথে হাঁটতে পারে উদ্ভব ঠাকরে সরকার। সর্বদল বৈঠকের পর ঘনিষ্ঠ মহলে এমনই মত পোষণ করেছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী। প্রতিদিন সারা দেশে যত সংখ্যক লোক নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন, তার অর্ধেক লোকই আক্রান্ত হয়েছেন মহারাষ্ট্রে। সেই কারণে করোনা সংক্রমণ রুখতে নতুন করে পুরো লকডাউন করার কথা চিন্তাভাবনা করছে মহারাষ্ট্র সরকার।

প্রশাসন সূত্রে খবর, সর্বদল বৈঠকে অবশ্য সকলে পুরোপুরি লকডাউনের পক্ষে সায় দেয়নি। শিবসেনা, কংগ্রেস ও এনসিপির অনেক সদস্যরাই লকডাউনের পক্ষে নেই। অন্যদিকে বিরোধী বিজেপির পক্ষ থেকেও অবশ্য পুরো লকডাউনের পক্ষে সায় নেই অনেকের। এই পরিস্থিতিতে প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, কয়েকদিন পুরোপুরি লকডাউনের প্রয়োজন আছে। তারপর ছাড় দেওয়া যেতে পারে। আগামী রবিবার কোভিড টাস্ক ফোর্সের সঙ্গে বৈঠক হবে।এরপরই এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

ইতিমধ্যে মহারাষ্ট্র জুড়ে নাইট কার্ফু ও সপ্তাহের শেষে একদিন লকডাউন রাখা হচ্ছে।কিন্তু পরিস্থিতি যে দিকে যাচ্ছে, তাতে সেটাও যে যথেষ্ট নয়, তা হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন প্রশাসনিক আধিকারিকরা। পুরোপুরি লকডাউন প্রসঙ্গে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবীশ জানান, যদি এভাবে লকডাউন চাপিয়ে দেওয়া হয়, তাহলে মানুষের মধ্যে ক্ষোভ বাড়বে। বহু ব্যবসা বন্ধ হয়ে যাবে। এই বিষয়ে সকলের চিন্তা করা উচিত।

বন্ধ করুন