বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 5G পরিষেবা চালুর পথে প্রধান বাধা স্পেকট্রামের দাম, ১০০% তৈরি নয় পরিকাঠামোও
দেশজুড়ে 5G পরিষেবা চালু করতে গেলে প্রয়োজন ডিভাইস, স্পেকট্রাম, ওয়্যারলেস ও ফাইবার অপটিক পরিমণ্ডল রচনা, যা ভারতে এখনও ১০০ শতাংশ প্রস্তুত হয়নি।
দেশজুড়ে 5G পরিষেবা চালু করতে গেলে প্রয়োজন ডিভাইস, স্পেকট্রাম, ওয়্যারলেস ও ফাইবার অপটিক পরিমণ্ডল রচনা, যা ভারতে এখনও ১০০ শতাংশ প্রস্তুত হয়নি।

5G পরিষেবা চালুর পথে প্রধান বাধা স্পেকট্রামের দাম, ১০০% তৈরি নয় পরিকাঠামোও

  • বিশেষজ্ঞদের দাবি, অত্যাধুনিক টেলিকম নেটওয়ার্ক চালু করার মূল পরিকাঠামো ভারতে এখনও ১০০ শতাংশ প্রস্তুত হয়নি।

ভারতে ৫জি টেলিকম পরিষেবা চালু হওয়া নিয়ে উত্তেজনায় জল ঢালল সরকারের স্পেকট্রাম-এর দাম নির্ধারণ নীতি। 

২০২১ সালের জুলাই মাসের মাঝামাঝি ৫জি পরিষেবা চালু করতে চলেছে রিলায়েন্স জিও ইনফোকম, জানিয়েছেন সংস্থার কর্ণধার মুকেশ আম্বানি। কিন্তু বিশেষজ্ঞদের দাবি, অত্যাধুনিক এই নেটওয়ার্ক চালু করার মূল পরিকাঠামো ভারতে এখনও ১০০ শতাংশ প্রস্তুত হয়নি। 

টেলিকম সরঞ্জাম প্রস্তুতকারী সংস্থা স্টেরলাইট টেকনোলজিস লিমিটেড যদিও জানিয়েছে যে, ভারতে ৫জি পরিষেবার জন্য পরিকাঠামো নির্মাণের কাজ চলছে, কিন্তু দেশজুড়ে এই পরিষেবা চালু করতে গেলে প্রয়োজন ডিভাইস, স্পেকট্রাম, ওয়্যারলেস ও ফাইবার অপটিক পরিমণ্ডল রচনা। এই বিষয়ে ভারত এখনও একশো শতাংশ তৈরি নয় বলে মনে করছেন সংস্থার গ্রুপ চিফ একজিকিউটিভ আনন্দ আগরওয়াল।

বিশেষজ্ঞদের দাবি, আর্থিক চাপে পড়ে যাওয়া ভারতী এয়ারটেল এবং ভোডাফোন আইডিয়া লিমিটেড ৫জি পরিষেবা চালু করার বিষয়ে পিছিয়ে পড়বে। বিশেষ করে ফাইবার-ভিত্তিক পরিকাঠামো গড়ে তুলতে স্পেকট্রামের যা দাম রাখা হয়েছে, তা ঋণ জর্জরিত দুই সংস্থার পক্ষে বহন করা এই মুহূর্তে অসম্ভব। এই কারণে স্পেকট্রামের দাম কমানোর জন্য কেন্দ্রের কাছে তারা বার বার আবেদন জানিয়েছে।

অন্য দিকে,নতুন টেলিকম পরিষেবাকে স্বাগত জানাতে ৫জি ডিভাইস বিক্রির হার লাফিয়ে বাড়তে শুরু করেছে। ২০২০ সালে প্রায় ২০ লাখ ৫জি স্মার্টফোন আমদানি করেছে ভারত, জানিয়েছেন টেকআর্ক সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা ফয়জল কাউসা। তাঁর মতে, চলতি বছরে ৩০,০০০ টাকার উপরে যে কোনও স্মার্টফোনেই ৫জি পরিষেবা ব্যবহারের সুবিধা থাকা উচিত। ভারতে এ বছর বিক্রয়যোগ্য ৭-৯% স্মার্টফোনেই ৫জি সাপোর্ট থাকবে বলে তিনি মনে করছেন।

বন্ধ করুন