বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পুলওয়ামা হামলার দ্বিতীয় বর্ষপূর্তির দিন জম্মু থেকে উদ্ধার ৭ কেজি বিস্ফোরক
পুলওয়ামা হামলার দ্বিতীয় বর্ষপূর্তির দিনই জম্মু থেকে উদ্ধার ৭ কেজি বিস্ফোরক। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
পুলওয়ামা হামলার দ্বিতীয় বর্ষপূর্তির দিনই জম্মু থেকে উদ্ধার ৭ কেজি বিস্ফোরক। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

পুলওয়ামা হামলার দ্বিতীয় বর্ষপূর্তির দিন জম্মু থেকে উদ্ধার ৭ কেজি বিস্ফোরক

  • ২০১৯ সালে পুলওয়ামা হামলার বর্ষপূর্তির দিন এত পরিমাণ বিস্ফোরক উদ্ধার হওয়ায় উদ্বেগ তৈরি হয়েছে।

ভেস্তে দেওয়া হল বড়সড় নাশকতার ছক। রবিবার জম্মুর একটি জনবহুল বাস স্ট্যান্ড থেকে সাত কিলোগ্রাম ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্রোসিভ ডিভাইস (আইইডি) উদ্ধার করা হয়েছে। বিশেষত ২০১৯ সালে পুলওয়ামা হামলার বর্ষপূর্তির দিন এত পরিমাণ বিস্ফোরক উদ্ধার হওয়ায় উদ্বেগ তৈরি হয়েছে।

গত ৬ ফেব্রুয়ারি জম্মুর কুঞ্জওয়ানি থেকে লস্কর-ই-মুস্তাফার স্বঘোষিত কমান্ডার হিদায়াতুল্লাহ মালিককে গ্রেফতার করা হয়। শনিবার সাম্বা জেলার বারি ব্রক্ষণা থেকে জাহুর আহমেদ রাথের নামে এক জঙ্গিকে গ্রেফতার করেছে নিরাপত্তা বাহিনী। গত বছর দক্ষিণ কাশ্মীরে এক পুলিশকর্মী এবং তিন বিজেপি নেতার হত্যার ঘটনায় দ্য রেসিসট্যান্স ফ্রন্ট নামে জঙ্গি সংগঠনের ওই সদস্যের সন্ধান চালানো হচ্ছিল। হিদায়াতুল্লাহের গ্রেফতারির পর জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের ডিজি দিলবাগ সিং বলেন, ‘জম্মুতে সন্ত্রাসবাদ ছড়ানোর জন্য যে গোপন আস্তানা গড়ে তোলা হয়েছিল, তা জানিয়েছে সে। ওরা পাকিস্তান থেকে অস্ত্র পায় এবং কাশ্মীর ও অন্যান্য জায়গায় তা পাঠানো হয়।’

তার কয়েকদিনের মধ্যেই জম্মুর কেসি চক থেকে বিস্ফোরক উদ্ধার করেছে নিরাপত্তা বাহিনী। আধিকারিকরা জানিয়েছেন, নির্দিষ্ট গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বিস্ফোরকের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। সূত্রের খবর, বাসস্ট্যান্ড থেকে এক জঙ্গিকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। যে পুলওয়ামার বাসিন্দা। আল-বদর নামে একটি জঙ্গি সংগঠনের সদস্য সেই ধৃত জঙ্গি সুহেল।

বন্ধ করুন