বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'প্লেবয়ের কাজ!'-রাতারাতি পুরুষ এসকর্ট নিয়োগের পোস্টারে ছেয়ে গেল গোটা শহর
এই পোস্টারে চেয়ে গিয়েছে শহর। 

'প্লেবয়ের কাজ!'-রাতারাতি পুরুষ এসকর্ট নিয়োগের পোস্টারে ছেয়ে গেল গোটা শহর

  • পোস্টারে লেখা রয়েছে, ‘প্লেবয়ের কাজ! পুরুষরা এসকর্ট কোম্পানিতে যোগ দিয়ে দিনে ৫০০০ থেকে ১০০০০ টাকা উপার্জন করতে পারে।’ সেখানে একটি হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরও দেওয়া আছে। কোটদ্বারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, যে বা যারা এর সঙ্গে জড়িত তাদের সন্ধান করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

পুরুষ এসকর্ট নিয়োগ নিয়ে একটি পোস্টার ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। পোস্টারে পুরুষ এসকর্ট সার্ভিসের জন্য দৈনিক ৫০০০ থেকে ১০ হাজার টাকা আয়ের কথা উল্লেখ করা রয়েছে। আসলে এই পোস্টারটি হল বিজেপি শাসিত উত্তরাখণ্ডের পাউরি গাড়ওয়াল অঞ্চলের কোটদ্বার শহরের। সম্প্রতি এই পোস্টারে ভরে গিয়েছে গোটা কোটদ্বার শহর। এমনকী থানায় এই পোস্টার পড়েছে। এই ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, কোটদ্বার শহরের বাস স্টেশন, ট্রেন স্টেশন থেকে শুরু করে প্রায় সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ চত্বর, সেইসঙ্গে কোটদ্বার পুলিশ সার্কেল অফিসার এবং পুরসভার দেওয়ালে পোস্টার লাগানো ছিল। এই পোস্টার সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।

আরও পড়ুন: দিশা দেখাল লাস্য, যৌনতায় মাখা Playboy, প্রচ্ছদে ঠাঁই সমকামী পুরুষ মডেলের

পোস্টারে লেখা রয়েছে, ‘প্লেবয়ের কাজ! পুরুষরা এসকর্ট কোম্পানিতে যোগ দিয়ে দিনে ৫০০০ থেকে ১০০০০ টাকা উপার্জন করতে পারে।’ সেখানে একটি হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরও দেওয়া আছে। কোটদ্বারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, যে বা যারা এর সঙ্গে জড়িত তাদের সন্ধান করার পাশাপাশি সাধারণ মানুষকেও এই প্রতারণার ফাঁদে পা না দেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, কোটদ্বারে এই প্রথমবার একই রাতে এই পোস্টার লাগানো হয়েছে। এরজন্য সিসিটিভি ক্যামেরাগুলিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

যদিও যে মোবাইল নম্বর পোস্টারে দেওয়া রয়েছে সেই নম্বরে যোগাযোগ করা যাচ্ছে না। সেটি বন্ধ রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। নম্বরটি ট্র্যাক করে জানা গিয়েছে সর্বশেষ অবস্থান ছিল দিল্লি এবং হরিয়ানার সীমান্তের কাছে। তরুণদের আকৃষ্ট করতে বাসস্টপ, ব্যাঙ্ক, মদের দোকান এবং বিভিন্ন ব্যবসার শোরুমের বাইরে এই পোস্টারগুলো দেওয়া হয়েছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ। সেই সমস্ত পোস্টার ছিঁড়ে দেওয়া হচ্ছে।

বন্ধ করুন