বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > জাভেদ–মমতা সাক্ষাৎ নয়াদিল্লিতে, বৈঠক করলেন প্রাক্তন বিজেপি নেতাও
জাভেদ আখতার দেখা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে। ছবি সৌজন্য–এএনআই।
জাভেদ আখতার দেখা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

জাভেদ–মমতা সাক্ষাৎ নয়াদিল্লিতে, বৈঠক করলেন প্রাক্তন বিজেপি নেতাও

  • এই বিশিষ্ট গীতিকার জাভেদ আখতার সক্রিয় রাজনীতি করেন না। কিন্তু মোদী জমানার নানা সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন।

একুশের নির্বাচনের পর তিনি নয়াদিল্লি সফরে এসেছিলেন। তখন তিনি দেখা করেছিলেন শিল্পী জাভেদ আখতারের সঙ্গে। এবার উপনির্বাচন সেরে গোয়া–ত্রিপুরা–মেঘালয় রাজ্যে সুর বেঁধে দিয়ে আবার নয়াদিল্লি সফরে এলেন। হ্যাঁ, তিনি বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তাঁর এই সফরের দ্বিতীয় দিনে শিল্পী জাভেদ আখতার এসে দেখা করলেন। শিল্পীর সঙ্গে ছিলেন প্রাক্তন বিজেপি নেতা সুধীন্দ্র কুলকার্নি। যা বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

এই বিশিষ্ট গীতিকার জাভেদ আখতার সক্রিয় রাজনীতি করেন না। কিন্তু মোদী জমানার নানা সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন। বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর অত্যন্ত মধুর সম্পর্ক। এবার তিনি নিজেই মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে গেলেন। সেখানে বেশ কয়েকটি ইস্যু নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথা হয় তাঁর। যা প্রকাশ্যে নিয়ে আসা হয়নি। আজ এখানে কংগ্রেসের দুই হেভিওয়েট নেতার যোগ দেওয়ার কথা। তাই এমন গুঞ্জনও শুরু হয়েছে, তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিতে পারেন জাভেদ আখতার।

উল্লেখ্য, জুলাই মাসের সাক্ষাতে জাভেদ আখতার বলেছিলেন, ‘দেশজুড়ে পরিবর্তন চাই। মমতা সেই নেত্রী যিনি শুধু পরিবর্তন চান, ঠিক যেমনটা বাংলায় হয়েছে।’ তখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগ বাড়িয়ে জাভেদ আখতারকে অনুরোধ করেছিলেন যাতে তিনি ‘খেলা হবে’ স্লোগান নিয়ে একটা গান লিখে দেন। সেই গান লেখা হয়েছে কিনা তা এখনও জানা যায়নি।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবার আর সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন না বলেই খবর। কারণ কংগ্রেসকে যেভাবে কাজ করতে বলেছিলেন মমতা সেভাবে এগিয়ে আসতে দেখা যায়নি। সেখানে ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে নয়াদিল্লিতে পরিবর্তনের বার্তা দিচ্ছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। আর তখনই এই সাক্ষাৎ বাড়তি মাত্রা যোগ করেছে। এদিন বিজেপির প্রাক্তন নেতা সুধীন্দ্র কুলকার্নির সঙ্গে বেশ কিছুক্ষণ কথা হয় মমতার বলে সূত্রের খবর। একসময় অটলবিহারী বাজপেয়ী ও লালকৃষ্ণ আদবানির ঘনিষ্ঠও ছিলেন সুধীন্দ্র। মমতাও তাঁকে আগে থেকে চেনেন। তাই মমতার সঙ্গে এই বৈঠক যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ।

বন্ধ করুন