বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কঠোর পরিশ্রমে তৈরি নিজের বাড়ি,গৃহপ্রবেশের দিনই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা দম্পতির
শ্যাম কিশোর মিশ্র ও সাধনা মিশ্র (ছবি সৌজন্যে হিন্দুস্তান) 
শ্যাম কিশোর মিশ্র ও সাধনা মিশ্র (ছবি সৌজন্যে হিন্দুস্তান) 

কঠোর পরিশ্রমে তৈরি নিজের বাড়ি,গৃহপ্রবেশের দিনই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা দম্পতির

  • বুধবার সকালে ঘরে দম্পতির মরদেহ ঝুলতে দেখে পরিবারের লোকজন পুলিশে খবর দেয়।

কঠোর পরিশ্রম করে নিজেদের বাড়ি তৈরি করার পর একদিন সেই সম্পত্তি ভোগ করা হল না। গৃহপ্রবেশের দিনই ঝগড়ার আত্মহত্যা স্বামী-স্ত্রীর। ঘটনাটি ঘটেছে লখনউতে। নতুন বাড়িতে ঢুকেই বিবাদে ক্ষিপ্ত হয়ে সাধনা মিশ্র (৩৬) গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ দেখে স্বামী শ্যাম কিশোর মিশ্রও (৩৮) গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। বুধবার সকালে ঘরে দম্পতির মরদেহ ঝুলতে দেখে পরিবারের লোকজন পুলিশে খবর দেয়। সন্ধ্যায় গোমতীনগরের এসিপি শ্বেতা শ্রীবাস্তব জানান, ময়নাতদন্তে নিশ্চিত হয়েছে যে সাধনা ও শ্যাম কিশোর ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেন।

গঙ্গোত্রীবিহারে নতুন বাড়ি তৈরি করেছিলেন গোন্ডার বাসিন্দা শ্যাম কিশোর মিশ্র। আত্মহত্যা করা দম্পতির অবিনাশ নামক এক ছেলে ও অদিতি নামক এক মেয়ে রয়েছে। শ্যাম কিশোরের ভাই রাম কিশোর এবং ব্রজ কিশোরের সাথে নতুন বাড়িটি তৈরি করেছিলেন বলে জানা গিয়েছে। মঙ্গলবার বাড়িতে গৃহপ্রবেশের অনুষ্ঠান ছিল। সেদিন পুজোর পর পরিবারটি নতুন বাড়িতে থাকতে শুরু করেন। সন্ধ্যায় নতুন বাড়ি বানানোর আনন্দে মেতে ওঠেন পরিবার সদস্যরা। একটি অর্কেস্ট্রাল পার্টিও ডাকা হয়েছিল।

সন্ধ্যায় মদ্যপান করেছিলেন শ্যাম কিশোর। এরপর অর্কেস্ট্রা পার্টির সঙ্গে আসা নৃত্যশিল্পীদের সঙ্গে নাচতে থাকেন তিনি। স্বামীর এই কাজ পছন্দ করেননি স্ত্রী সাধনা। যার জেরে স্বামীকে ঘরে যেতে বলছিলেন তিনি। কিন্তু শ্যাম কিশোর স্ত্রীর কথা শোনেননি। একসময় সাধনা তাঁর স্বামীকে কোনওমতে ঘরে নিয়ে যায়। কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই তিনি আবার ফিরে আসেন। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। গভীর রাতে আবারও স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া হয় সাধনার। সেই সময় ছেলে অবিনাশ ও অদিতিও ছিল ঘরে। পরে রাতে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন সাধনা। পরে একই কাজ করে বসেন শ্যাম কিশোর।

বন্ধ করুন