শনিবার দুপুরে দিল্লির শাহিনবাগে শূন্যে গুলি চালায় কপিল গুজ্জর নামে এই যুবক।  (ANI)
শনিবার দুপুরে দিল্লির শাহিনবাগে শূন্যে গুলি চালায় কপিল গুজ্জর নামে এই যুবক। (ANI)

এই দেশে হিন্দুরাই শেষ কথা বলবে, হুঙ্কার দিয়ে শাহিনবাগে গুলি চালাল আততায়ী

ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কোনও হতাহতের খবর নেই। পুলিশ আততায়ীকে আটক করেছে বলে খবর মিলছে।

দিল্লির শাহিনবাগে চলল গুলি। শনিবার বিকেলে ঘটনাটি ঘটে। জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে CAA বিরোধী আন্দোলনকারীদের লক্ষ্য করে গুলির পর এবার গুলি চলল শাহিনবাগে।

ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কোনও হতাহতের খবর নেই। পুলিশ আততায়ীকে আটক করেছে বলে খবর মিলছে।

এদিন বিকেল ৪.৫৩ মিনিটে শাহিনবাগ চত্বরে গুলির শব্দ শোনা যায়। একটিই গুলি চালানোর শব্দ শোনা যায় বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। প্রতিবাদ স্থল থেকে ৫০০ মিটার দূরে জাসোলা মোড়ে আততায়ী শূন্যে গুলি চালায় বলে জানা গিয়েছে।

ধৃত যুবক জানিয়েছে, তার নাম কপিল গুজ্জর। নয়েডা লাগোয়া পূর্ব দিল্লির দল্লুপুরা গ্রামের বাসিন্দা সে।


দিল্লির ডিসিপি চিন্ময় বিসওয়াল বলেন, ‘শূন্যে একটি গুলি চালায় ওই যুবক। সঙ্গে সঙ্গে তাকে নিরস্ত করে পুলিশ।’

তবে সংবাদসংস্থা PTI জানিয়েছে, গুলি চলেছে শাহিনবাগের মঞ্চের ঠিক পিছনে। পুলিশ নয়, আততায়ীকে পাকড়াও করেন সেখানে উপস্থিত সাধারণ মানুষ। এর পর তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

ঘটনাস্থলে হাজির একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলের সাংবাদিক জানিয়েছেন, গুলি চালানোর সময় আততায়ী বলছিল, ‘এই দেশে হিন্দুরাই শেষ কথা বলবে।’

শাহিনবাগে অবস্থানরত এক প্রতিবাদী জানিয়েছেন, গুলি চালানোর আগে আন্দোলনকারীদের শাহিনবাগ খালি করে দিতে হুমকি দিচ্ছিল ওই যুবক।

বন্ধ করুন