বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দন্তেওয়াড়ার সংঘর্ষে নিহত দুর্ধর্ষ মাওবাদী কম্যান্ডার, আহত জঙ্গিদের খুঁজছে পুলিশ
বুধবার দন্তেওয়াড়া জেলায় পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হল মাওবাদী জঙ্গি নেতা হিদমা মুচাকির। চলেছে তল্লাশি অভিযান।
বুধবার দন্তেওয়াড়া জেলায় পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হল মাওবাদী জঙ্গি নেতা হিদমা মুচাকির। চলেছে তল্লাশি অভিযান।

দন্তেওয়াড়ার সংঘর্ষে নিহত দুর্ধর্ষ মাওবাদী কম্যান্ডার, আহত জঙ্গিদের খুঁজছে পুলিশ

  • পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হল মাওবাদী জঙ্গি নেতা হিদমা মুচাকি। তার মাথার দাম ছিল ৫ লাখ টাকা।

বুধবার সকালে ছত্তিশগড়ের বস্তার অঞ্চলে দন্তেওয়াড়া জেলায় পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হল মাওবাদী জঙ্গি নেতার। তার মাথার দাম ছিল ৫ লাখ টাকা। 

দন্তেওয়াড়ার পুলিশ সুপার অভিষেক পল্লব হিন্দুস্তান টাইমস-কে জানিয়েছেন, এ দিন ভোরে জেলার চিকপাল ও মারজুম গ্রামের মধ্যবর্তী জঙ্গলে পুলিশের সঙ্গে মাওবাদী বাহিনীর গুলির লড়াই বাধে। 

তাঁরকথায়, ‘মঙ্গলবার রাতে মাওবাদী দমন অভিযানে বেরোয় ডিস্ট্রিক্ট রিজার্ভ গার্ড এবং ছত্তিশগড় আর্মড ফোর্সের যৌথ বাহিনী। বুধবার ভোরে তারা যখন জঙ্গলে প্রবেশ কতরে, তখনই সংঘর্ষ শুরু হয়। গুলির লড়াই থামলে আমরা হিদমা মুচাকির দেহ উদ্ধার করি। সিপিআই (মাওবাদী) কাটেকল্যাণ এরিয়া কমিটির সে সক্রিয় সদস্য ছিল।’

সংঘর্ষস্থল থেকে একটি পিস্তল উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ দিন বিকেল পর্যন্ত এলাকায় তল্লাশি অভিযান জারি রেখেছে নিরাপত্তা বাহিনী। 

পুলিশের রেকর্ড বলছে, ওই অঞ্চলে একাধিক অপরাধমূলক মামলায় জড়িত ছিল মুচাকি। ২০০৮-০৯ সালে তাকে মাওবাদী বাহিনীর অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ধীরে ধীরে সে বাহিনীর গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হয়ে ওঠে। সরকার তাকে গ্রেফতার করলে ৫ লাখ টাকা পুরস্কার ধার্য করে।

এসপি জানিয়েছেন, ‘মঙ্গলবার আমরা গোপন সূত্রে খবর পাই যে, এক আদিবাসীকে পুলিশের চর অভিযোগে হত্যার পরিকল্পনা করে মাওবাদী জঙ্গিরা। ওই গ্রামে পৌঁছে নিশানায় থাকা বাসিন্দাকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে সে পুলিশকে মারজুম গ্রামের কাছে মাওবাদীদের গোপন ঘাঁটির খবর জানায় এবং রাতে তাদের জমায়েত হবে বলেও জানায়। খবর পেয়ে আমরা গোটা এলাকা ঘিরে ফেলি এবং ভোর হওয়ার আগে সংঘর্ষ শুরু হয়।’

পুলিশের দাবি, মাটির উপর রক্তের দাগ ওই অঞ্চলে আরও বেশ কয়েক জন নিহত বা আহত মাওবাদী জঙ্গি বাহিনীর সদস্যের উপস্থিতির সাক্ষ্য বহন করছে। তাদের সন্ধানে তল্লাশিতে নেমেছে পুলিশ।

বন্ধ করুন