বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ঝাড়খণ্ডে সংঘর্ষে খতম মাওবাদী কম্যান্ডার জিদান গুড়িয়া, মাথার দাম ১৫ লাখ টাকা
সোমবার সকালে নিরাপত্তাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে খতম হল নিষিদ্ধ মাওবাদী সংগঠন পিপলস লিবারেশন ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়ার (PLFI) দুর্ধর্ষ কম্যান্ডার জিদান গুড়িয়া।
সোমবার সকালে নিরাপত্তাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে খতম হল নিষিদ্ধ মাওবাদী সংগঠন পিপলস লিবারেশন ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়ার (PLFI) দুর্ধর্ষ কম্যান্ডার জিদান গুড়িয়া।

ঝাড়খণ্ডে সংঘর্ষে খতম মাওবাদী কম্যান্ডার জিদান গুড়িয়া, মাথার দাম ১৫ লাখ টাকা

  • সংঘর্ষে খতম হল নিষিদ্ধ মাওবাদী সংগঠন পিপলস লিবারেশন ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়ার (PLFI) দুর্ধর্ষ কম্যান্ডার জিদান গুড়িয়া। তার মাথার দাম ছিল ১৫ লাখ টাকা।

সোমবার সকালে নিরাপত্তাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে খতম হল নিষিদ্ধ মাওবাদী সংগঠন পিপলস লিবারেশন ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়ার (PLFI) দুর্ধর্ষ কম্যান্ডার জিদান গুড়িয়া। তার মাথার দাম ছিল ১৫ লাখ টাকা। 

খুন্তি জেলার পুলিশ সুপার আশুতোষ শেখর এই তথ্য জানিয়ে তা PLFI-এর পক্ষে বড়সড় আঘাত বলে মন্তব্য করেন। তিনি বলেন,খুন্তি জেলার মুরহু থানার অন্তর্গত কোয়েংসার গ্রামে সকাল ৯.৩০ নাগাদ জেলা পুলিশ ও সিআরপিএফ বব্যাটালিয়ন ৯৪-এর যৌথ বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে খতম হয়েছে PLFI-এর শীর্ষস্থানীয় কম্যান্ডার জিদান গুড়িয়া। ঘটনাস্থল থেকে একটি একে-৪৭ অটোম্যাটিক অ্যাসল্ট রাইফেল উদ্ধার করা হয়েছে।সংঘর্ষ এখনও শেষ হয়নি এবং সবিস্তারে খবরের জন্য অপেক্ষা করা হচ্ছে।’

নিহত PLFI কম্যান্ডার জিদান গুড়িয়ার মাথার দাম ছিল ১৫ লাখ টাকা।
নিহত PLFI কম্যান্ডার জিদান গুড়িয়ার মাথার দাম ছিল ১৫ লাখ টাকা।

গোপন সূত্রে পুলিশ খবর পায়, PLFI প্রধান দীনেশ গোপ, যার মাথার দাম ২৫ লাখ টাকা এবং দলের আর এক জঙ্গিনেতা মার্টিন কেরকেট্টা কোয়ংসার গ্রামের কাছে জঙ্গলে রয়েছে। সিংভূম জেলা সীমানার কাছাকাছি ওই অঞ্চলে যৌথ বাহিনী পৌঁছলে জঙ্গেল ভিতর থেকে ঝাঁকে ঝাঁকে গুলি ছুটে আসে। পালটা গুলি চালাতেশুরু করে নিরাপত্তা বাহিনী। সংঘর্ষে মারা যায় জিদান। বাকি জঙ্গিরা গভীর জঙ্গলের আড়ালে পালিয়ে যায়।

পুলিশ জানিয়েছে, এই নিয়ে চতুর্থ বার কড়া পাহারা সত্ত্বেও পুলিশের নাগাল এড়াল দীনেশ গোপ। চার দিন আগে পশ্চিম সংভূম জেলা পুলিশ ও সিআরপিএফ ৬০ নম্বর ব্যাটালিয়নের চোখে ধুলো দিয়ে উধাও হয়েছিল কুখ্যাত জঙ্গিনেতা। গত বৃহস্পতিবার রাতে পশ্চিম সিংভূম জেলার পোড়াহাট ফরেস্ট রেঞ্জের বান্দু জঙ্গলের সেই ঘটনায় নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে প্রাণ হারায় PLFI জঙ্গি সোনু কুমার এবং গ্রেফতার হয় রাঁচি জেলার লাপুং গ্রামের বাসিন্দা ফুলচন্দ মুন্ডা। 

গত ৩০ দিনে বান্দগাঁও ও সোনুয়া থানা অন্তর্গত দুই জায়গায় দীনেশ গোপ ও জিদান গুড়িয়ার নেতৃত্বাধীন PLFI জঙ্গিদের সঙ্গে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছিল পুলিশ ও সিআরপিএফ-এর যৌথ বাহিনী। 

পুলিশের দাবি, পোড়াহাট রেঞ্জের বান্দু-সহ বিভিন্ন জঙ্গলে গত একমাসের ওপর ঘুরে বেড়াচ্ছিল দীনেশ গোপ, জিদান গুড়িয়া ও মার্টিন কেরকেট্টার অধীনস্থ জঙ্গিবাহিনী। এ দিন সকালের সংঘর্ষে তাদের দলে কমপক্ষে ১৫-২৫ জন জঙ্গি ছিল। 

বন্ধ করুন