বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মুখ ঢাকা কয়েকজন এসে কেটে নিল হাতটা, হাড়হিম ঘটনা, কাটা হাত কোথায় গেল?

মুখ ঢাকা কয়েকজন এসে কেটে নিল হাতটা, হাড়হিম ঘটনা, কাটা হাত কোথায় গেল?

মুখ ঢাকা লোকজন হাত কেটে নিয়ে চলে গেল। প্রতীকী ছবি  (Johanna Geron, Pool Photo via AP) (AP)

এই ঘটনায় ব্যাপক শোরগোল পড়েছে এলাকায়। পুলিশ তদন্ত নেমেছে। তারা মুখ ঢেকে এসেছিল, কেন তারা হামলা চালিয়েছে তা খতিয়ে দেখার চেষ্টা করছে পুলিশ। তাদের মধ্যে পুরানো কোনও শত্রুতা ছিল কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

নৃশংসতম ঘটনা হরিয়ানার কুরুক্ষেত্রে। একজন ব্যক্তির হাত কেটে ফেলেছে দুষ্কৃতীরা। অভিযোগ এমনটাই। হাড়হিম ঘটনা। পুলিশ সূত্রে খবর, ওই হাতটি নিয়ে অভিযুক্ত ব্য়ক্তি ওই কাটা হাতটি সঙ্গে নিয়ে চলে যায়। জুগনু নামে ওই ব্যক্তিকে জখম অবস্থায় লোক নায়ক জয়প্রকাশ নারায়ণ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

পুলিশ এনিয়ে তদন্ত শুরু করেছে। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এই ঘটনায় অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে। সদর থানা এলাকার ঘটনা। ডিএসপি রামদত্ত নৈন জানিয়েছেন, দশ থেকে ১২জন লোক তাদের মুখ ঢেকে কুরুক্ষেত্র হাভেলিতে প্রবেশ করেছিল। তখনই জুগনুর উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে কয়েকজন। তার হাতটি কেটে নেওয়া হয়।এদিকে এই ঘটনার পেছনে কী কারণ রয়েছে তা এখনও পরিষ্কার নয়।

পুলিশ জানিয়েছে, তার স্টেটমেন্ট রেকর্ড করা হয়েছে। তার ভিত্তিতে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এদিকে প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, কুরুক্ষেত্রে হাভেলির বাইরে বসেছিলেন ওই ব্যক্তি। তখনই তার উপর কয়েকজন হামলা চালায়। তার হাতটি কেটে নেওয়া হয়েছে। এরপর ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়।

এই ঘটনায় ব্যাপক শোরগোল পড়েছে এলাকায়। পুলিশ তদন্ত নেমেছে। তারা মুখ ঢেকে এসেছিল, কেন তারা হামলা চালিয়েছে তা খতিয়ে দেখার চেষ্টা করছে পুলিশ। তাদের মধ্যে পুরানো কোনও শত্রুতা ছিল কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এদিকে আহত ব্যক্তির অবস্থা সংকটজনক। তার সঙ্গেও পুলিশ কথা বলার চেষ্টা করেছে। এই ভয়াবহ নৃশংসতার জেরে নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। তবে সূত্রের খবর, অভিযুক্তরা গা ঢাকা দিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। এই ঘটনার পেছনে ঠিক কী কারণ রয়েছে সেটা দেখা হচ্ছে।

এদিকে এর আগে উত্তরপ্রদেশের হরদোই জেলাতে এক ব্যক্তি তার ১৭ বছর বয়সী মেয়ের মাথা কেটে ফেলেছিলেন। এরপর তিনি সেটা নিয়ে রাস্তা দিয়ে হেঁটে যেতে শুরু করেন। এরপর পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। তারা এসে ওই ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসা করে কার মাথা এটি। তিনি সাফ জানিয়ে দেন, এটা তার মেয়ের মাথা। কারণ মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক তিনি মানতে পারেননি। সেকারণে তিনি মেয়ের মাথা কেটে নিয়েছেন। এমনকী ঘরেই বডি পড়ে রয়েছে বলে তিনি পুলিশকে জানিয়েছিলেন।

 

বন্ধ করুন