বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ডিসেম্বরেই পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে আইফেল টাওয়ারের আকারের বিশালাকৃতি গ্রহাণু!
ডিসেম্বরেই পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে আইফেল টাওয়ারের আকারের বিশাল গ্রহাণু!। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য টুইটার @SOFIAtelescope)
ডিসেম্বরেই পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে আইফেল টাওয়ারের আকারের বিশাল গ্রহাণু!। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য টুইটার @SOFIAtelescope)

ডিসেম্বরেই পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে আইফেল টাওয়ারের আকারের বিশালাকৃতি গ্রহাণু!

  • আগামী মাসেই আইফেল টাওয়ারের আকারের গ্রহাণু ধেয়ে আসছে পৃথিবীর দিকে।

আগামী মাসেই আইফেল টাওয়ারের আকারের গ্রহাণু ধেয়ে আসছে পৃথিবীর দিকে। এমনটাই জানিয়েছে মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসা। তবে নাসার তরফে জানানো হয়েছে, আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। কারণ আগামী ১১ ডিসেম্বর সেই 'সম্ভাব্য ঝুঁকিপূর্ণ' (যখন কোনও গ্রহাণু পৃথিবীর ৪.৫৬ মিলিয়ন মাইলের মধ্যে আসে ও ব্যাসার্ধ ৫০০ ফুটের বেশি হয়) গ্রহাণু পৃথিবীর ২.৪ মিলিয়ন মাইল দূর থেকে বেরিয়ে যাবে।

মার্কিন মহাকাশ সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, ওই গ্রহাণুটি ৩৩০ মিটার মতো চওড়া। নাম দেওয়া হয়েছে ‘4660 Nereus’। তাতে অবশ্য আশঙ্কার কিছু নেই। বরং আগামী কয়েক দশকে ওই গ্রহাণু ১২ বার পৃথিবীর কাছ দিয়ে যাবে। সবথেকে কাছ দিয়ে গ্রহাণুটি যেতে পারে ২০৬০ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি। সেইসময় পৃথিবী থেকে ওই গ্রহাণুর দূরত্ব থাকবে ৭৪৫,৬৪৫ মাইল। যা কিনা চাঁদ এবং পৃথিবীর দূরত্বের প্রায় তিনগুণ। পৃথিবী এবং চাঁদের দূরত্ব হল ২৩৯,০০০ মাইল। অর্থাৎ সেই গ্রহাণু নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কোনও কারণ নেই বলে জানিয়েছে মার্কিন মহাকাশ সংস্থা। আর সূর্য থেকে প্রায় ৯৩ মিলিয়ন মাইল দূরে অবস্থিত পৃথিবী।

এমনিতে পৃথিবীর কাছ দিয়ে গ্রহাণু যাওয়ার ঘটনা কোনও নতুন বিষয় নয়। মাঝেমধ্যেই বেশ বড়সড় গ্রহাণুর কাছ দিয়ে চলে যায়। গত মার্চেই একটি গ্রহাণুর পৃথিবীর কাছে দিয়ে গিয়েছিল। পৃথিবী থেকে সেই গ্রহাণুর দূরত্ব ছিল ১.২৫ মিলিয়ন মাইল। দুর্গাপুজোর নবমীতেই একটি গ্রহাণু পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসবে বলে জানানো হয়েছিল। তাতে পৃথিবীর উপর কোনও প্রভাব পড়েনি।

বন্ধ করুন