বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > এখন আদানি কার? আগের টুইট মোছা সময়ের অপেক্ষা, মহুয়াকে খোঁচা সেলিমের
আদানি প্রসঙ্গ মহুয়া মৈত্রকে খোঁচা সিপিএম নেতা সেলিমের (ফাইল ছবি) (PTI Photo) (PTI)
আদানি প্রসঙ্গ মহুয়া মৈত্রকে খোঁচা সিপিএম নেতা সেলিমের (ফাইল ছবি) (PTI Photo) (PTI)

এখন আদানি কার? আগের টুইট মোছা সময়ের অপেক্ষা, মহুয়াকে খোঁচা সেলিমের

  • বৃহস্পতিবার সেই আদানিই দেখা করেছেন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে।

একেবারে দিন ধরে ধরে টুইট তুলে ধরেছেন প্রাক্তন সিপিএম সাংসদ মহম্মদ সেলিম। সবকটা টুইটই তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রের। আর সেলিমের তুলে ধরা সেই সব টুইটে শিল্পপতি গৌতম আদানিকে তুলোধোনা করেছিলেন মহুয়া মৈত্র। তবে বৃহস্পতিবার সেই আদানিই দেখা করেছেন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে। মুখ্য়মন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে কার্যত উচ্ছসিত আদানি। পাশাপাশি বাংলায় বিনিয়োগের বিপুল সম্ভাবনার কথা উল্লেখ করেছেন তিনি। তার সঙ্গেই মুখ্যমন্ত্রী আয়োজিত বিশ্ব বাণিজ্য সম্মেলনে অংশ নিতে তিনি যে উন্মুখ হয়ে আছেন সেকথাও জানিয়েছেন আদানি। আর এখানেই মহুয়া মৈত্রকে নিশানা করেছেন সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিম।

মহুয়া মৈত্রের আগের করা দশটি টুইট তুলে ধরে সেলিম লিখেছেন, এই টুইটগুলি মুছে দেওয়া এখন সময়ের অপেক্ষা। এবার দেখা যাক কী রয়েছে মহুয়ার সেই টুইটে। ২৭শে জুনের টুইটে মহুয়া লিখেছিলেন, ২ সপ্তাহ কেটে গিয়েছে আমরা এখনও জানি না আদানির কাছে কার টাকা রয়েছে। ১৯শে জুলাইয়ের টুইটে মহুয়া লিখেছিলেন,মন্ত্রী সংসদে বলছেন সেবি তদন্ত করছে। আদানি বলছেন, সেবির কাছ থেকে কোনও নোটিশ পাননি। মন্ত্রী বলছেন, ডিআরআই তদন্ত চলছে। আদানি বলছেন, ডিআরআই কোনও অন্যায় খুঁজে পাননি। কাকে আমরা বিশ্বাস করব? প্রশ্ন তুলেছিলেন মহুয়া মৈত্র। ২২শে জুলাইয়ের টুইটে মহুয়া মৈত্র আদানির বিরুদ্ধে সরাসরি বেনামী সম্পত্তি ও প্রতারণার অভিযোগ তুলেছিলেন। তাৎপর্যপূর্ণভাবে তথাকথিত মোদী ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত সেই আদানির সঙ্গেই বিনিয়োগ নিয়ে আলোচনা করেছেন তৃণমূল নেত্রী। এবার মহুয়া মৈত্র কি মুছে ফেলবেন আগের সেই সব টুইট, প্রশ্ন তুলছেন বাম নেতৃত্ব। 

 

বন্ধ করুন