সীমান্তে শান্তি ও স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে ভারতীয় সেনা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।
সীমান্তে শান্তি ও স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে ভারতীয় সেনা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

লাদাখে চিনই অবৈধ ভাবে সীমান্ত পেরিয়েছে, পালটা অভিযোগ নয়াদিল্লির

  • LAC অতিক্রম করার চিনা অভিযোগ উড়িয়ে দিল নয়াদিল্লি।

ভারতীয় সেনার বিরুদ্ধে লাদাখ ও সিকিম সীমান্তে আসল নিয়ন্ত্রণরেখা (LAC) অতিক্রম করার চিনা অভিযোগ উড়িয়ে দিল নয়াদিল্লি। উলটে ভারতীয় ভূখণ্ডে চিনা সেনাবাহিনীর অবৈধ প্রবেশের প্রতিবাদ জানাল বিদেশ মন্ত্রক।

বৃহস্পতিবার বিদেশ মন্ত্রকের মু্খপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব জানিয়েছেন, সীমান্তে শান্তি ও স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে ভারতীয় সেনা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তবে দেশের সার্বভৌমত্ব ও নিরাপত্তার স্বার্থে সব রমক পদক্ষেপ করতে প্রস্তুত রয়েছে বাহিনী।

সম্প্রতি লাদাখ ও উত্তর সিকিমে ভারতীয় সেনার সঙ্গে সংঘাতে যুক্ত হয়চিনের সেনাবাহিনী। পরিস্থিতি জটিল হয়ে ওঠে লাদাখের গলওয়ান উপত্যকায় দুই পক্ষ অতিরিক্ত সেনা সমাবেশের আয়োজন করলে। 

বুধবার আমেরিকার শীর্ষ স্থানীয় কূটনীতিক অ্যালিস ওয়েলস বলেন, এই ঘটনায় প্রমাণিত হয়েছে যে দক্ষিণ এশিয়ায় হুমকির রাজনীতি শুরু করেছে চিন। তার পরেই চিনের বিরুদ্ধে তোপ দাগে ভারতের বিদেশ মন্ত্রক।

মার্কিন কূটনীতিকের অভিযোগ ‘স্রেফ বাজে কথা’ বলে উড়িয়ে দেন চিনা বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান। তাঁর দাবি, পরিস্থিতি আরও জটিল করে না তুলতে ভারতের উচিত একপেশে পদক্ষেপ থেকে বিরত থাকা।

গত মঙ্গলবার হিন্দুস্তান টাইমস-কে দেওয়া বিবৃতিতে বেজিং সীমান্ত অস্থিরতার জন্য প্রথম ভারতকে অভিযুক্ত করে। চিনের অভিযোগ, সীমান্তবিধি অমান্য করে ভারতীয় সেনা চিনা ভূখণ্ডে অনুপ্রবেশ করে সে দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর দৈনিক টহলদারি ব্যবস্থায় বাধা সৃষ্টি করেছে। 

এই প্রসঙ্গে এ দিন শ্রীবাস্তব বলেন, ‘ভারতের সমস্ত গতচিবিধি LAC-এর ভারতীয় প্রান্তেই সীমাবদ্ধ রয়েছে। সম্প্রতি ভারতীয় সীমান্তরক্ষা বাহিনীর গতিবিধিতে অবৈধ ভাবে বাধা সৃষ্টি করছে চিন।’ 

বন্ধ করুন