বুধবার নয়াদিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠকে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। ছবি সৌজন্যে এএনআই।
বুধবার নয়াদিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠকে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। ছবি সৌজন্যে এএনআই।

মিশছে দশটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক, এপ্রিলে আত্মপ্রকাশ নতুন চেহারার ৪ ব্যাঙ্কের

  • ব্যাঙ্ক একত্রীকরণ প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছে এবং সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্ক বোর্ডগুলি এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে।

দশটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ককে মিশিয়ে চারটি ব্যাঙ্কে রূপান্তরের কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। আগামী ১ এপ্রিল থেকে তা প্রকাশ্যে আসবে, জানালেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন।

বুধবার অর্থমন্ত্রী জানান, ১০ ব্যাঙ্কের একত্রীকরণ প্রস্তাবে সম্মতি জানিয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা এবং উল্লিখিত ব্যাঙ্কগুলির সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছে প্রশাসন। একত্রীকরণ প্রক্রিয়া নিয়ে কোনও সমস্যা দেখা দেবে না বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

এ দিন সাংবাদিক বৈঠকে তিনি জানান, ‘ব্যাঙ্ক একত্রীকরণ প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছে এবং সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্ক বোর্ডগুলি এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে।’

জানা গিয়েছে, ঈন্তর্জাতিক আকার ও মানের ব্যাঙ্ক গড়ার লক্ষ্যেই একত্রীকরণের সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

গত ২০১৯ সালের অগস্ট মাসে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের ক্ষেত্রে চারটি গুরুত্বপূর্ণ একত্রীকরণ ঘোষণা করে কেন্দ্র। এর ফলে ২০১৭ সালে দেশে ২৭ ব্যাঙ্ক থাকলেও চলতি বছরে তা কমে ১২টিতে এসে দাঁড়াবে।

পরিকল্পনা অনুযায়ী, ইউনাইটেড ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া এবং ওরিয়েন্টাল ব্যাঙ্ক অফ কমার্স পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কের সঙ্গে মিশবে, সিন্ডিকেট ব্যাঙ্ক মিশবে কানাড়া ব্যাঙ্কের সঙ্গে। এলাহাবাদ ব্যাঙ্ক এবং ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্ক মিশে যাবে। অন্ধ্র ব্যাঙ্ক ও কর্পোরেশন ব্যাঙ্ক ইউনিয়ন ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার সঙ্গে মিশে যাবে।

২০১৯ সালে দেনা ব্যাঙ্ক ও বিজয়া ব্যাঙ্ক মিশেছিল ব্যাঙ্ক অফ বরোদার সঙ্গে। স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার সঙ্গে মিশে গিয়েছিল এসূিআই-এর ৫টি সহযোগী ব্যাঙ্ক এবং ভারতীয় মহিলা ব্যাঙ্ক।

বন্ধ করুন