বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মালখানার ৫৮১ কেজি গাঁজা কোথায় গেল? নেংটি ইঁদুরে খেয়েছে, আদালতে সাফাই পুলিশের

মালখানার ৫৮১ কেজি গাঁজা কোথায় গেল? নেংটি ইঁদুরে খেয়েছে, আদালতে সাফাই পুলিশের

 ইঁদুর কি গাঁজা খায়? (প্রতীকী ছবি)

পুলিশের তরফে আদালতে জানানো হয়েছে, ইঁদুরগুলো খুব ছোট। আর নেংটি ইঁদুররা পুলিশকেও ভয় পায় না। আর পুলিশ এগুলিকে নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষেত্রে ঠিক দক্ষ নয়।

বাজেয়াপ্ত করা গাঁজা কী হল তা নিয়ে প্রশ্ন করেছিল আদালত। এনডিপিএস অ্য়াক্টে যে মারিজুয়ানা ধরা পড়েছে তা আদালতে পেশ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল পুলিশকে। আর মথুরা পুলিশ তার উত্তরে আদালতে জানিয়েছে, শেরগড় আর হাইওয়ে পুলিশ স্টেশনে বাজেয়াপ্ত হওয়া গাঁজা রাখা হয়েছিল। কিন্তু ৫০০ কেজিরও বেশি গাঁজা খেয়ে ফেলেছে ইঁদুরে।

আর পুলিশের এই দাবি শুনে বিচারপতি মথুরার এসএসপি অভিষেক যাদবকে নির্দেশ দিয়েছেন, ইঁদুরের উৎপাত বন্ধ করুন আর ৫৮১ কেজি গাঁজা ইঁদুরে খেয়ে ফেলেছে তার প্রমাণ দিন। এদিকে এই গাঁজার বাজারমূল্য প্রায় ৬০ লাখ টাকা। পাশাপাশি পুলিশের গুদামঘরে রাখা গাঁজা কী করতে হবে তার পাঁচটি পয়েন্টও উল্লেখ করেছে আদালত। টাইমস অফ ইন্ডিয়ায় এই খবর প্রকাশিত হয়েছে।

সূত্রের খবর, গত ১৮ নভেম্বর আদালত এই নির্দেশ জারি করেছে। কিন্তু পুলিশের তরফে ঠিক কী সাফাই দেওয়া হয়েছে? পুলিশের তরফে আদালতে জানানো হয়েছে, ইঁদুরগুলো খুব ছোট। আর নেংটি ইঁদুররা পুলিশকেও ভয় পায় না। আর পুলিশ এগুলিকে নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষেত্রে ঠিক দক্ষ নয়। এদিকে ২০২০ সালের মে মাসে এই বিপুল পরিমাণ মারিজুয়ানা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছিল। একটি ট্রাকে মিলেটের বস্তার নীচে লুকিয়ে প্রায় ৩৮৬ কেজি গাঁজা পাচার করা হচ্ছিল। সেই সময় তিনজনকে গ্রেফতারও করা হয়।

 

বন্ধ করুন