বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > খাবারের প্লেটে তুর্কি পিৎসার ক্ষুদ্র সংস্করণ, নয়া উদ্যোগ তুরস্কের দম্পতির

খাবারের প্লেটে তুর্কি পিৎসার ক্ষুদ্র সংস্করণ, নয়া উদ্যোগ তুরস্কের দম্পতির

খাবারের প্লেটে তুর্কি পিৎসার ক্ষুদ্র সংস্করণ। ছবি ডয়চে ভেলে

আনেল ও বুরজু নিজেদের বসার ঘরেই ছোট আকারের আস্ত রান্নাঘর সাজিয়েছেন৷ মোমবাতির শিখায় চুলা জ্বলে৷ ডিশ ওয়াশার বা ফ্রিজের মতো যন্ত্র বিদ্যুৎ অথবা ব্যাটারিতে চলে৷

পরিচিত ও পছন্দের খাদ্যগুলির ক্ষুদ্র সংস্করণ খেতে কেমন লাগবে? তুরস্কের এক দম্পতি ক্ষুদ্র এক রান্নাঘরে সে দেশের এমন সব পদ রান্না করে প্রশংসা কুড়াচ্ছে৷ ভবিষ্যতে বিদেশি পদেরও এমন মিনিয়েচার সৃষ্টি করতে চান তাঁরা৷ তুরস্কের লাখমাজুন পিৎসা ও বাকলাভা মিষ্টির ক্ষুদ্র সংস্করণ৷ মান্টে নামের পুরে ভরা তুর্কি পিঠারও একই দশা৷ ইস্তানবুল শহরের এই মিনি রেস্তোরাঁয় তুরস্কের পরিচিত পদগুলির ক্ষুদ্র সংস্করণ পাওয়া যায়৷ মিনি টার্কিশ কুইজিনের উদ্যোক্তা বুরজু চেলেনোলে ও আনেল আইদেন জানালেন, ‘আমরা মিনি টার্কিশ কুইজিন চ্যানেলে মিনিয়েচার মিল তৈরি করি৷ প্রায় চার বছর ধরে এই দোকান চালাচ্ছি৷ এটা আমাদের নেশা৷ এভাবে আমরা গোটা বিশ্বে তুরস্কের খাবার তুলে ধরতে চাই৷'

আনেল ও বুরজু নিজেদের বসার ঘরেই ছোট আকারের আস্ত রান্নাঘর সাজিয়েছেন৷ মোমবাতির শিখায় চুলা জ্বলে৷ ডিশ ওয়াশার বা ফ্রিজের মতো যন্ত্র বিদ্যুৎ অথবা ব্যাটারিতে চলে৷ সবকিছুর আকারই প্রকৃত মাপের ১২ গুণ কম৷ বুরজু চেলেনোলে পেশায় সোশাল মিডিয়া বিশেষজ্ঞ ও তাঁর স্বামী আনেল আইদেন ভিডিয়ো নির্মাতা৷ এই দম্পতি একসঙ্গে ক্যুনেফে, মুখলামা বা সিমিটের মতো তুর্কি পদের ক্ষুদ্র সংস্করণ রান্নার ভিডিও তোলেন৷ তাঁরা সেগুলি ইউটিউব ও ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেন৷ গোটা বিশ্বে তাঁদের অনেক ফলোয়ার রয়েছে৷ স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে আনেল বলেন, ‘‘প্রথমে এটা আমার স্ত্রীর আইডিয়া ছিল৷ সত্যি কথা বলতে কি শুরুতে আমি তেমন উৎসাহ দেখাই নি৷ ভেবেছিলাম এমন উদ্যোগ সফল হবে না৷ কিন্তু শুরু হবার পর অনেক সাড়া পেলাম৷ অনেক ভিউ ও কমেন্ট এলো৷'

আনেলের স্ত্রী বুরজু বলেন, ‘গতানুগতিক রান্নাঘরে কাজ করতে ভালোই লাগে৷ কিন্তু এই টাইনি কিচেনে কাজ করার মজাই আলাদা৷ কারণ আমি তো আসলে ফলোয়ারদের জন্য কিছু তৈরি করছি৷ আসল রান্নাঘরে যা বানাই নি, এখানে আমি সেগুলি পরখ করে দেখছি৷ যেমন আসল রান্নাঘরে আমি কখনও লাখমাজুন রান্না করিনি৷ শুধু টাইনি কিচেনে তৈরি করেছি৷ ফলে সেটা খুব ভালো হয়েছিল এবং কদরও পেয়েছিল৷ সে কারণে এই রান্নাঘরে কাজ করে আরও আনন্দ পাই৷' গোটা বিশ্বেই ‘মিনি কুকিং'-এর প্রবণতা বাড়ছে৷ বিশেষ করে জাপান, কোরিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সেটি খুব জনপ্রিয়৷

মিনি টার্কিশ কুইজিনে আঙুরের পাতা দিয়ে তৈরি পাতুরি ও ভাত পরিবেশন করা হচ্ছে৷ মিনি কুকিং মোটেই সহজ নয়৷ এর জন্য চাই দক্ষতা ও অনেক ধৈর্য্য৷ বুরজু চেলেনোলে বলেন, ‘আমার মতে, পদটি মূল রান্নার মতো হবে কিনা, তা নিয়ে দুশ্চিন্তাই সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ৷ কারণ দেখতে ভালো, সব উপকরণ ঠিকমতো থাকলেও ছোট এক মোমবাতির উত্তাপ হয়তো যথেষ্ট নয়৷ চুলা হয়তো ঠিকমতো গরমই হলো না৷ আর ছোট আকারে তৈরি করলে হয়তো মূল পদের মতো দেখতেই হবে না৷'

শেষে ছোট এক বন্ধ বাটির মধ্যে আঙুর পাতার পাতুরি ভাপানো হল৷ সাধারণ মাপের পদের ক্ষেত্রেও এমনটাই করা হয়৷ বুরজু জানালেন, ‘এ ছাড়াও আমরা নিজেদের রেসিপির আরও উন্নতির লক্ষ্যে আন্তর্জাতিক পদ নিয়েও পরীক্ষানিরীক্ষা করি৷ আমাদের ফলোয়ারদের কাছ থেকেও অনেক অনুরোধ আসে৷ যেমন ইটালির স্পাগেটি বা স্পেনের তাকো তৈরির অনেক বায়না আসে৷ আমাদের টাইনি টার্কিশ কিচেনে কীভাবে সব রান্না করা যায়, আমরা তাদের সেটা দেখাতে চাই৷ আমাদের এমন সব লক্ষ্য রয়েছে৷' উচ্চ মানের ক্ষুদ্র পদ প্রস্তুত করে মিনি টার্কিশ কিচেন দেখিয়ে দিচ্ছে, যে আকার-আয়তনে কিছুই এসে যায় না৷

বন্ধ করুন