বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'রাষ্ট্রসংঘে চতুর্থবার ভাষণ চাওয়ালার সন্তানের', ভারতের গণতন্ত্রকে কুর্নিশ মোদীর
রাষ্ট্রসংঘে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (ছবি সৌজন্যে এএনআই) (ANI)
রাষ্ট্রসংঘে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (ছবি সৌজন্যে এএনআই) (ANI)

'রাষ্ট্রসংঘে চতুর্থবার ভাষণ চাওয়ালার সন্তানের', ভারতের গণতন্ত্রকে কুর্নিশ মোদীর

  • রাষ্ট্রসংঘকে শক্তিশালী করার বার্তা দেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

ফের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মুখে চাওয়ালার প্রসঙ্গ। নিজেকে চাওয়ালার সন্তান আখ্যা দিয়ে ভোট প্রচারে ঝড় তুলেছেন মোদী। আর সেই 'চাওয়ালা' প্রসঙ্গ তুলে ভারতীয় গণতন্ত্রকে বিশ্বমঞ্চে কুর্নিশ জানালেন মোদী। ভারতের গণতন্ত্রের মহিমা ব্যাখ্যা করতে গিয়ে শনিবার রাষ্ট্রসংঘের ৭৬তম সাধারণ সভায় মোদী দাবি করেন, তিনি একটি ছোট্ট রেলস্টেশনে বাবার চায়ের দোকানে সাহায্য করতেন। সেখান থেকে তিনি গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন। ওই রাজ্যে সবচেয়ে বেশি সময় মুখ্যমন্ত্রী থেকেছেন।

মোদী জানান, মুখ্যমন্ত্রী হয়েই তিনি থেমে থাকেননি। তার পর ভারতের প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন। সেই পদেও তিনি কাটিয়ে ফেলেছেন সাত বছর। মনে করিয়ে দেন, প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন তিনি রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ সভায় চারবার ভাষণ দিলেন তিনি। এই বিষয়টিকে যথেষ্ট গর্বের বলে উল্লেখ করেন তিনি। পাশাপাশি তিনি জানান, এটাই ভারতের গণতন্ত্রের সাফল্য। গণতন্ত্রই পারে এটা করতে। পাশাপাশি এদিন তিনি তাঁর আমলে হওয়া ভারতের বিকাশের কথাও তুলে ধরেন বিশ্বমঞ্চে। সাত বছরে তাঁর সরকার কী কী কাজ করেছে, তার উদাহরণ দেন মোদী। বলেন, যখন ভারতে উন্নতি হয়, ভারতে পরিবর্তন হয়, তখন সারা বিশ্বে তাই হয়।

তাছাড়া এদিন আরও কিছু বিষয় এদিন উঠে আসে মোদীর ভাষণে। তিনি ভারতের শ্রেষ্ঠ কূটনীতিক বলে উল্লেখ করেন চাণক্যকে। চাণক্যের শ্লোকও আওড়ান ভাষণের সময়। আর ভাষণের শেষে রাষ্ট্রসংঘকে শক্তিশালী করার বার্তা দিতে গিয়ে আউড়ান রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের লেখা লাইন।

পাশাপাশি এধিন মোদী অভিযোগ করেন, আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানগুলিকে কব্জা করার চেষ্টা করছে চিন। মোদীর দাবি, চিনের প্রভআব বিস্তারের জেরে করোনা অতিমারী পরিস্থিতিতে রাষ্ট্রসংঘ সহ একাধিক প্রতিষ্ঠানের ভূমিকাও প্রশ্নচিহ্নের মুখে পড়েছে। রাষ্ট্রসংঘকে ঘুরে দাঁড়িয়ে ফের শক্তিশালী হওয়া আহ্বান জানালেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

বন্ধ করুন