বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Amit Shah Snubs Rahul Gandhi: ‘মোদী ধরনায় বসেননি…’, গুজরাট দাঙ্গার প্রসঙ্গ তুলে রাহুলকে খোঁচা শাহের
কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ  (ANI )

Amit Shah Snubs Rahul Gandhi: ‘মোদী ধরনায় বসেননি…’, গুজরাট দাঙ্গার প্রসঙ্গ তুলে রাহুলকে খোঁচা শাহের

  • নাম না নিয়ে রাহুলকে তোপ দেগে এদিন মোদীর উদাহরণ তুলে ধরলেন শাহ। তিনি বলেন, SIT-র সামনে হাজির হওয়ার সময় মোদীজি নাটক করেননি। তিনি বলেননি, আমার সমর্থনে বেরিয়ে আসুন, বিধায়ক-এমপিদের ডাকুন এবং ধরনা করুন...

‘ভগবান শঙ্করের বিষপানের মতো সব সহ্য করেছেন নরেন্দ্র মোদী।’ ১৯ বছর পুরোনো গুজরাট দাঙ্গায় মোদীর বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ খারিজ হওয়ায় মুখ খুললেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী মোদীর উদাহরণ টেনে খোঁচা দিলেন রাহুল গান্ধীকে। নাম না নিয়ে রাহুলকে তোপ দেগে এদিন মোদীর উদাহরণ তুলে ধরলেন শাহ। তিনি বলেন, ‘SIT-র সামনে হাজির হওয়ার সময় মোদীজি নাটক করেননি। তিনি বলেননি, আমার সমর্থনে বেরিয়ে আসুন, বিধায়ক-এমপিদের ডাকুন এবং ধরনা করুন... SIT যদি মুখ্যমন্ত্রীকে প্রশ্ন করতে চায় তবে তিনি নিজে সহযোগিতা করতে প্রস্তুত। প্রতিবাদ কেন?’ প্রসঙ্গত, বিগত কয়েকদিনে রাহুলকে ইডির তলব ঘিরে কংগ্রেস নেতা-কর্মীরা রাজধানী প্রায় অচল করে দেওয়ার পরিস্থিতি তৈরি করেছিলেন।

উল্লেখ্য, গুজরাট ঘটনায় বিরোধীরা সরাসরি আঙুল তোলেন মোদীর দিকে। পরে মামলায় ক্লিনচিট পান মোদী। তাতেও অবশ্য অস্বস্তি মিলিয়ে যায়নি মোদীর। সেই দাঙ্গায় মৃত্যু হয়েছিল কংগ্রেস নেতা এহসান জাফরির। তাঁর স্ত্রী জাকিয়া জাফরি গুজরাত দাঙ্গা নিয়ে 'ষড়যন্ত্র' এর দাবি তুলে মামলা করেছিলেন সুপ্রিম কোর্টে। সেখানে দাবি করা হয় পুর্নতদন্তের। তবে আদালত সেই ষড়যন্ত্রের তত্ত্বে তদন্ত খারিজ করে দিয়েছে। এই আবহে এবার এই দাঙ্গা প্রসঙ্গে মুখ খুললেন মোদীর আস্থাভাজন ডেপুটি অমিত শাহ। সংবাদ সংস্থা এএনআইকে দেওয়া এক একান্ত সাক্ষাতকারে এই দাঙ্গার বিভিন্ন দিক তুলে ধরলেন শাহ। জানালেন কীভাবে নীলকণ্ঠের মতো মোদী সব ‘মিথ্যা অভিযোগ’ সহ্য করেছেন।

বারবার গুজরাটের তৎকালীন মোদী সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে নিষ্ক্রিয়তার। অভিযোগ ওঠে, মোদী নাকি দাঙ্গা থামানোর থেকে পুলিশকে বিরত রেখেছিলেন। এই অভিযোগ প্রসঙ্গে অমিত শাহ বলেন, ‘বিজেপির রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বী, রাজনৈতিকভাবে অনুপ্রাণিত সাংবাদিক এবং কিছু এনজিও গুজরাট দাঙ্গা নিয়ে মিথ্যা প্রচার করে। তাদের একটি শক্তিশালী ইকোসিস্টেম ছিল। তাই সবাই সেই মিথ্যাকে সত্য বলে বিশ্বাস করতে শুরু করে।’

বন্ধ করুন