বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > করোনা আক্রান্ত হয়ে ৩০ লক্ষের বেশি মানুষ মারা গিয়ে থাকতে পারে ভারতে, দাবি গবেষণায়

করোনা আক্রান্ত হয়ে ৩০ লক্ষের বেশি মানুষ মারা গিয়ে থাকতে পারে ভারতে, দাবি গবেষণায়

ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)

জাতীয় সমীক্ষা ও সরকারি দু’টি তথ্য ভাণ্ডারের সাহায্যে এই গবেষণা চালানো হয়েছে। গবেষণায় দাবি, সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের সময়ই ভারতে প্রাণ হারিয়ে থাকতে পারেন ২৭ লক্ষ মানুষ।

সরকারি তথ্য অনুযায়ী দেশে মোট ৪ লক্ষ ৮৩ হাজার ৪৬৩ জন করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে আজকে পর্যন্ত। তবে আসলে করোনা আক্রান্ত হয়ে দেশে প্রাণ হারিয়ে থাকতে পারে ৩০ লক্ষেরও বেশি মানুষ। এমনই দাবি করা হল এক গবেষণা পত্রে। কানাডার টরোন্টোর সেন্টার ফর গ্লোবাল হেলথ রিসার্চের বিজ্ঞানীরা এই গবেষণা চালিয়েছেন। একটি জাতীয় সমীক্ষা ও সরকারি দু’টি তথ্য ভাণ্ডারের সাহায্যে এই গবেষণা চালানো হয়েছে।

গবেষকরা জানিয়েছেন, ভারত সরকারের ‘হেলথ ম্যানেজমেন্ট ইনফর্মেশন সিস্টেমে’র থেকে সরকারি করোনা মৃত্যুর হিসেব সংক্রান্ত তথ্য পেয়েছে তারা। পাশাপাশি ‘সিভিল রেজিস্ট্রেশন সিস্টেমে’র থেকে দেশে মোট মৃত্যুর পরিসংখ্যান পেয়েছে তারা। এই দুই তথ্য খতিয়ে দেখেই গবেষণা সম্পন্ন করা হয়েছে। সঙ্গে জাতীয় স্তরে একটি সমীক্ষাও চালানো হয়েছিল। গবেষণকেদর দাবি, ভারতে করোনা আক্রান্ত হয়ে মোট ৩১ লক্ষ থেকে ৩৪ লক্ষ মানুষের মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে। এর মধ্যে থেকে এপ্রিল-জুলাই মাসে করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের সময়ই প্রাণ হারিয়ে থাকতে পারেন ২৭ লক্ষ মানুষ।

জানা গিয়েছে, গবেষকদের হয়ে জাতীয় স্তরে সমীক্ষাটি করেছে সিভোটার। মোট ১ লক্ষ ৪০ হাজার ব্যক্তির উপর এই সমীক্ষা চালানো হয়। প্রাক-মহামারী সময়ের সাথে তুলনা করে তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গিয়েছে যে ভারতের ২ লক্ষ হাসপাতালে সর্বজনীন মৃত্যুর হার ২৭ শতাংশ বেশি এবং সিভিল রেজিস্ট্রেশন সিস্টেমের তথ্যে দেখা গিয়েছে দশটি রাজ্যে মৃতদের নাগরিক নিবন্ধনের হার ২৬ শতাংশ বৃদ্ধি হয়েছে। বিশ্লেষণে দেখা গিয়েছে যে ২০২১ সালের সেপ্টেম্বরের মধ্যে ভারতের কোভিড মৃত্যু সরকারি রিপোর্টের থেকে ৬ থেকে ৭ গুণ বেশি ছিল।

 

বন্ধ করুন